ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রীর কাছে রাজ্যের বকেয়া ২৫,০০০ টাকা চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী

  • চিঠিতে মমতা লিখেছেন, লকডাউনের ফলে কল কারখানা সব বন্ধ হয়ে যাওয়ায় রাজ্যগুলির রাজস্ব আদায় প্রায় বন্ধ।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকের আগের দিন কেন্দ্রের কাছে ২৫,০০০ কোটি টাকা চাইলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই মর্মে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বুধবার চিঠি দিয়েছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর দোহাই দিয়ে এই টাকা চেয়েছেন তিনি।

চিঠিতে মমতা লিখেছেন, লকডাউনের ফলে কল কারখানা সব বন্ধ হয়ে যাওয়ায় রাজ্যগুলির রাজস্ব আদায় প্রায় বন্ধ। এই পরিস্থিতিতে বহু রাজ্য কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের পুরো বেতন ও পেনশন দিতে পারছে না। সেই পরিস্থিতিতেই পুরো বেতন দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ।

মমতা চিঠিতে মনে করিয়ে দেন, কেন্দ্রীয় তহবিলের ৩৬,০০০ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের। তার মধ্যে ২৫,০০০ কোটি টাকা রাজ্যকে দেওয়ার আবেদন জানাচ্ছি।‘

মমতা লিখেছেন, ‘লকডাউনের মধ্যে রাজ্যের ৯ কোটি মানুষের খাদ্যশস্যের যোগান দিচ্ছে রাজ্য সরকার। যার ফলে টাকার খুব প্রয়োজন।’ সঙ্গে রাজ্যের কর মকুবের প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। মনে করিয়েছেন, রাজ্যকে প্রতি বছর ৫৫ হাজার কোটি টাকা বকেয়া শুরু হয়।

বলে রাখি, করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই রাজ্যের প্রাপ্য প্রায় ১,০০০ কোটি টাকা মিটিয়ে দিয়েছে কেন্দ্র। এই টাকা প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে রাজ্যের ক্ষতিপূরণ বাবদ পাওনা ছিল। তাছাড়া করোনা মোকাবিলায় ১৫,০০০ কোটি টাকা ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

বন্ধ করুন