মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অমিত শাহ। ফাইল ছবি
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অমিত শাহ। ফাইল ছবি

রাজ্যপালের পর এবার অমিত শাহের মুখোমুখি হতে পারেন মমতা

  • আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ওড়িশার ভুবনেশ্বরে পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের বৈঠকে মুখোমুখি হতে পারেন তাঁরা।

কেজরিওয়ালের রণনীতি অনুসরণ করে কি এবার ভোটে জিততে নরম হিন্দুত্বের পথে নামতে চলেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও? সোমবার রাজভবনে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠকের পর সেই প্রশ্ন ভাসছে। এরই মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা মমতার। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ওড়িশার ভুবনেশ্বরে পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের বৈঠকে মুখোমুখি হতে পারেন তাঁরা।

দেশের আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা দৃঢ় করতে রাজ্যগুলির সমন্বয় বাড়াতে হয় পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের বৈঠক। মাদক ও মানুষ পাচার, মাওবাদী গতিবিধি নিয়ে যৌথ রণকৌশল তৈরি হয় এই বৈঠকে। রাজ্য সরকার সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে সেই বৈঠকের আমন্ত্রণ এসে পৌঁছেছে নবান্নে। রাজ্য স্বরাষ্ট্র দফতর সূত্রের খবর, ওই বৈঠকে যোগ দিতে ওড়িশা যেতে পারেন বলে মনে করছেন দফতরের একাধিক কর্তা।

পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের গত বৈঠক হয়েছিল কলকাতায়। সেই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেছিলেন তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। সেবার আলোচনা হয়েছিল মাওবাদী সমস্যা নিয়ে। পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, ঝাড়খণ্ড ও ওড়িশাকে তৈরি পূর্বাঞ্চল পরিষদ।

বলে রাখি, সোমবার দুপুরেই পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে রাজভবনে গিয়ে প্রায় ১ ঘণ্টা বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অনেকেই মনে করছেন, দিল্লিতে কেজরিওয়ালের নরম হিন্দুত্বের ফরমুলা পশ্চিমবঙ্গেও কাজে লাগাতে চান মুখ্যমন্ত্রী। তাই আপাতত বিজেপির সঙ্গে খাদে পৌঁছে যাওয়া সম্পর্ক মেরামতির চেষ্টা চালাচ্ছেন তিনি। ফিরতে চাইছেন সৌজন্যের রাস্তায়।



বন্ধ করুন