বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Bharat Joro Program: বাড়িতে থাকবে ছোট্ট মেয়ে, রাহুলের সঙ্গে ৩,৫০০ কিমি হাঁটবেন মধ্যমগ্রামের শিক্ষিকা
কংগ্রেস নেত্রী পূজা পরাজিতা রায়চৌধুরী।

Bharat Joro Program: বাড়িতে থাকবে ছোট্ট মেয়ে, রাহুলের সঙ্গে ৩,৫০০ কিমি হাঁটবেন মধ্যমগ্রামের শিক্ষিকা

  • আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকে রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে কন্যাকুমারী থেকে কাশ্মীর পর্যন্ত ‘ভারত জোড়ো’ যাত্রা শুরু হবে। সেই পদযাত্রার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে কংগ্রেস নেত্রী তথা সল্টলেকের বাসিন্দা ও ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষিকা পূজাকে। সারা ভারত থেকে কংগ্রেসের এই যাত্রায় মোট ১১৭ জন অংশগ্রহণ করেছেন।

এর আগেও দু'বার বাইকে করে কলকাতা থেকে লাদাখ গিয়েছেন তিনি। আর এবার যাবেন কন্যাকুমারী থেকে কাশ্মীর। তবে এবারের যাত্রাটা অন্যান্য বারের থেকে পুরোপুরি আলাদা। কারণ এবার কন্যাকুমারী থেকে কাশ্মীর পর্যন্ত সাড়ে তিন হাজার পথ অতিক্রম করতে হবে পায়ে হেঁটে। তার জন্য পুরোদমে প্রস্তুত সল্টলেকের বছর ৩৪-এর পূজা পরাজিতা রায়চৌধুরী। আর সেইসঙ্গে এবারের যাত্রা পুরোপুরি রাজনৈতিক।

আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে কন্যাকুমারী থেকে কাশ্মীর পর্যন্ত ‘ভারত জোড়ো’ যাত্রা শুরু হবে। সেই পদযাত্রার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে কংগ্রেস নেত্রী তথা সল্টলেকের বাসিন্দা ও ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষিকা পূজাকে। সারা ভারত থেকে কংগ্রেসের এই যাত্রায় মোট ১১৭ জন অংশগ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ থেকে রয়েছেন দু'জন। পূজা ছাড়াও আর একজন হলেন উত্তরবঙ্গের সেবাদলের কর্মী কিরণ ছেত্রী। পাঁচ মাস ধরে চলবে এই পদযাত্রা। প্রতিদিন ২২-২৫ কিলোমিটার করে হাঁটা হবে। আর রাতে শিপিং কন্টেনারের মধ্যে থাকার ব্যবস্থা থাকবে।

ছোট্ট মেয়েকে বাড়িতে ফেলে পাঁচ মাস বাড়ির বাইরে কাটানোর জন্য এখন সকলের নজরে রয়েছেন পূজা। তিনি মধ্যমগ্রামের ইনস্টিটিউট অফ জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের মলিকিউলার বায়োলজির শিক্ষিকা। কলেজে পড়ার সময় থেকেই তিনি কংগ্রেস করে আসছেন। সল্টলেকে উপ-নির্বাচনে তিনি প্রার্থী হয়েছিলেন এবং নিজেই প্রচার চালিয়েছিলেন। কিন্তু ছোট্ট মেয়েকে ফেলে এতদিন বাইরে কীভাবে থাকবেন? সেটা এখন জানতে চাইছেন অনেকেই। যদিও পূজার স্পষ্ট কথা, যে তাঁর পরিবারের সমর্থন রয়েছে। পরিবারের সদস্যই মেয়ের দেখাশোনা করবেন। ফলে তাতে কোনও অসুবিধা হবে না। তিনি বলেন, ‘আমি এগুলোকে দুর্বলতা বলে মনে করি না।’

প্রতিদিন জগিংয়ে অভ্যস্ত পূজার কথায়, প্রতিদিন ২৫ কিমি হাঁটতে তার কোনও অসুবিধা হবে না। রাহুল গান্ধীও বেশিরভাগ পথ হাঁটবেন। তারপর পদযাত্রীদের সঙ্গে ট্রাকের কন্টেনারে থাকবেন। অন্যদিকে, বছর ৪৬-এর ছেত্রী মনে করেন মনের জোর থাকলেই সব কিছু সম্ভব। এই মতাদর্শই বিজেপিকে হারাতে পারে বলে তিনি মনে করছেন।

বন্ধ করুন