বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনা নেগেটিভ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, টুইট করলেন উদ্বিগ্ন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে।
পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে।

করোনা নেগেটিভ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, টুইট করলেন উদ্বিগ্ন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

  • তাঁর চিকিৎসায় ইতিমধ্যে ৪ সদস্যের একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সিটি স্ক্যান ছাড়া তাঁর আরও বেশ কিছু পরীক্ষা করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

‌শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার জেরে বুধবার সকালে দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে। তবে স্বস্তির খবর এই যে, তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হলে সেই র‌্যাপিড টেস্টের ফল নেগেটিভ আসে। বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ শরীরে তাঁর অক্সিজেনের মাত্রাও কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে।

এদিন উডল্যান্ডস হাসপাতালে নিয়ে আসার পর প্রথমে বুদ্ধবাবুকে রাখা হয় ফ্লু ক্লিনিকে। সেখানে করোনা পরীক্ষা–সহ প্রাথমিক বেশ কিছু পরীক্ষা করিয়ে তাঁকে ভর্তি নেওয়া হয়। তাঁর চিকিৎসায় ইতিমধ্যে ৪ সদস্যের একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সিটি স্ক্যান ছাড়া তাঁর আরও বেশ কিছু পরীক্ষা করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্যের অবনতির খবর পেয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এদিন টুইট করে লিখেছেন, ‘‌বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন শুনে আমি যথেষ্ট উদ্বিগ্ন। তাঁর দ্রুত সুস্থতার জন্য প্রার্থনা করছি এবং তাঁর শুভ কামনা করছি।’‌

২০০০ সাল থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী থাকা বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য বেশ কয়েক মাস ধরে বয়সজনিত সমস্যা ও শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। এখন তাঁর বয়স ৭৬। গত ১৫ বছর ধরে তাঁর সিওপিডি–র (‌ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ)‌ সমস্যা রয়েছে। ২০১৮ সালে তিনি সিপিএমের পলিটব্যুরো ও কেন্দ্রীয় কমিটির পাশাপাশি রাজ্য সচিবালয় থেকে পদত্যাগ করেছেন।

গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে বেশ কয়েক দিন হাসপাতালে ভর্তি থাকতে হয়েছিল রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে। বাড়ি ফেরার পর থেকে তিনি পাঁচজন চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে থাকতেন। বেশি দিন হাসপাতালে থাকতে নারাজ বুদ্ধবাবু একবার জানিয়েছিলেন, তিনি যদি বেশি দিন হাসপাতালে থাকে তবে বাকি রোগীদের সমস্যা হতে পারে। তাই গত বছর ভর্তি থাকার পাঁচদিনের মাথায় রীতিমতো মুচলেকা দিয়ে বাড়ি চলে আসেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

বন্ধ করুন