বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ২ নভেম্বর থেকে পশ্চিমবঙ্গে স্নাতক স্তরের ক্লাস শুরু, স্নাতকোত্তর তার পরেই: পার্থ
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

২ নভেম্বর থেকে পশ্চিমবঙ্গে স্নাতক স্তরের ক্লাস শুরু, স্নাতকোত্তর তার পরেই: পার্থ

  • ১৮ নভেম্বর থেকে স্নাতকোত্তর স্তরের ক্লাস শুরু করানোর কথা বলা হয়েছে। যদি তা সম্ভব না হয় তবে ডিসেম্বরের শুরু থেকেই ক্লাস শুরু হয়ে যাবে স্নাতকোত্তরের।

২০২০–২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের প্রথম বর্ষের ভর্তি ও ক্লাস শুরু নিয়ে ‌ইউজিসি–র (বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন)‌ নির্দেশিকা মেনে নিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। রবিবার এ ব্যাপারে রাজ্যের সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৈঠকে জানানো হয়, ২ নভেম্বর থেকে রাজ্যের প্রতিটি কলেজে স্নাতক স্তরের ক্লাস শুরু হবে। এ ছাড়া আরও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এদিনের বৈঠকে।

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে কবে থেকে ক্লাস শুরু হবে সে ব্যাপারে সম্প্রতি একটি অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশ করে ইউজিসি। তাতে কেন্দ্রের তরফে যা সুপারিশ করা হয়েছে তার পুরোটাই রাজ্য এদিন মেনে নিয়েছে। কলেজে ১ নভেম্বর থেকে ক্লাস শুরু করার কথা বলেছে ইউজিসি। কিন্তু সেদিন রবিবার পড়ায় ২ নভেম্বর থেকে রাজ্যের প্রতিটি কলেজে প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হয়ে যাচ্ছে। তবে এবার থেকে সপ্তাহে ৬ দিন ক্লাস করানো যাবে বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে, স্নাতক স্তরের চূড়ান্ত বর্ষের রেজাল্ট বেরনো এখনও বাকি রয়েছে। তাই রেজাল্ট বেরনোর পর ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ হতে কতদিন লাগবে তার ওপর নির্ভর করে ১৮ নভেম্বর থেকে স্নাতকোত্তর স্তরের ক্লাস শুরু করানোর কথা বলা হয়েছে। যদি তা সম্ভব না হয় তবে ডিসেম্বরের শুরু থেকেই ক্লাস শুরু হয়ে যাবে স্নাতকোত্তরের।

তবে এতদিন স্নাতকোত্তরে ভর্তির ক্ষেত্রে নিজেদের বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের জন্য ৬০ শতাংশ আসন সংরক্ষণ করা থাকত। এবার তা বাড়িয়ে ৮০ শতাংশ করা হয়েছে। অর্থাৎ অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে এ বছর স্নাতকোত্তর স্তরে ভর্তির জন্য ২০ শতাংশ আসন বরাদ্দ থাকবে।

বন্ধ করুন