বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > শুক্রবার পর্যন্ত গোটা পশ্চিমবঙ্গে লক ডাউন, অকারণে বাইরে বেরোলেই ব্যবস্থা
রবিবার 'জনতা কার্ফু'র মধ্যে উলটোডাঙা ফ্লাইওভার। (PTI)
রবিবার 'জনতা কার্ফু'র মধ্যে উলটোডাঙা ফ্লাইওভার। (PTI)

শুক্রবার পর্যন্ত গোটা পশ্চিমবঙ্গে লক ডাউন, অকারণে বাইরে বেরোলেই ব্যবস্থা

  • চালু থাকবে জরুরি পরিষেবা। খোলা থাকবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকান।

করোনাভাইরাস রুখতে গোটা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে লক ডাউন ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। সোমবার বিকেল ৪টে থেকে লাগু হবে লক ডাউন। আপাতত শুক্রবার রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে লক ডাউন।

রবিবার বিকেলে নবান্ন থেকে জারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, লক ডাউন চলাকালীন চালু থাকবে জরুরি যাবতীয় পরিষেবা। খোলা থাকবে যাবতীয় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকান। কোথাও ৭ জনের বেশি জড়ো হওয়া যাবে না। অকারণে বাড়ি থেকে বেরোলে ১৮৮ ধারা অনুসারে সরকার ব্যবস্থা। বিদেশ থেকে ফিরলে বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিনের কোয়ারেনটাইনে থাকতে হবে।

লক ডাউনে খোলা থাকবে মুদি, রেশন, ওষুধের দোকান। খোলা থাকবে মাছ, মাংস ও সবজির বাজার। তবে চলবে না যানবাহন। অকারণে রাস্তায় বেরোলে গ্রেফতার করতে পারে সরকার।

জানা গিয়েছে রবিবার কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর দফতরের প্রধান সচিবের সঙ্গে বৈঠক হয় সমস্ত রাজ্যের মুখ্যসচিবদের। সেই বৈঠকেই 'জনতা কার্ফু'র মেয়াদ বাড়ানোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য রাজ্যগুলিকে স্বাধীনতা দেয় কেন্দ্র। দেশের যে ৭৫টি জেলায় করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে সেখানে লক ডাউন ঘোষণা করার পরামর্শ দেয় দিল্লি।

এর পরই একে একে লক ডাউন ঘোষণা করে পঞ্জাব, রাজস্থান ও ওড়িশা সরকার। বিকেল গড়াতে না-গড়াতেই সেই পথে হাঁটল পশ্চিমবঙ্গও।




বন্ধ করুন