বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > মাত্র ৪৫০ টাকায় বাড়ি বসে করা যাবে করোনা পরীক্ষা, ব্যবস্থা করছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার
করোনার অ্যান্টিজেন টেস্ট কিট
করোনার অ্যান্টিজেন টেস্ট কিট

মাত্র ৪৫০ টাকায় বাড়ি বসে করা যাবে করোনা পরীক্ষা, ব্যবস্থা করছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

  • নবান্ন সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে ১০,০০০ অ্যান্টিজেন কিট কিনেছে রাজ্য সরকার। তাদের গুণমান পরীক্ষার কাজ চলছে। দেশে ৮টি সংস্থাকে এই কিট তৈরির অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার মধ্যে রয়েছে ICMR-ও।

আপনি কি করোনা সংক্রমিত? এবার নিজের পরীক্ষা করতে পারবেন নিজেই। তেমনই সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে। করোনাভাইরাস পরীক্ষার অ্যান্টিজেন কিট খোলা বাজারে বিক্রির অনুমোদন দেওয়ার কথা ভাবনাচিন্তা করছে নবান্ন। শেষ পর্যন্ত সেই অনুমোদন মিললে রক্তের সামান্য নমুনা নিয়ে বাড়ি বসেই করা যাবে করোনা পরীক্ষা। 

বর্তমানে করোনা পরীক্ষা হয় RT-PCR বা ট্রুনাট পদ্ধতির সাহায্যে। এই পদ্ধতিতে পরীক্ষা করতে প্রয়োজন হয় একাধিক যন্ত্রের। যা বাড়িতে বসে করা অসম্ভব। ফলে করোনা পরীক্ষার একমাত্র ঠিকানা সরকারি বা বেসরকারি পরীক্ষাগার। কিন্তু সেই দিন যেতে চলেছে। এবার থেকে বাড়িতেও করা যাবে করোনা পরীক্ষা। 

নবান্ন সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে ১০,০০০ অ্যান্টিজেন কিট কিনেছে রাজ্য সরকার। তাদের গুণমান পরীক্ষার কাজ চলছে। দেশে ৮টি সংস্থাকে এই কিট তৈরির অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার মধ্যে রয়েছে ICMR-ও। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই কিটের মাধ্যমে নির্ভুলভাবে করোনা পরীক্ষা সম্ভব না হলেও ফলের ওপর মোটামুটি আস্থা রাখা যেতে পারে। এই কিটে কারও রিপোর্ট পজিটিভ এলে তাকে নিশ্চিত হওয়ার জন্য RT-PCR পরীক্ষা করাতেই হবে। শুধুমাত্র এর ফলের ভিত্তিতে কাউকে সংক্রমিত বলে ধরা যায় না। 

স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, বর্তমানে একএকটি কিটের দাম পড়ছে ৪৫০ টাকা। তবে ব্যবহার বাড়লে তা অর্ধেক হয়ে যাবে। তবে সমস্যা একটাই। এই কিট মাইনাস ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হয়। সেখান থেকে বার করার কিছুক্ষণের মধ্যেই ব্যবহার করে ফেলতে হয় কিটটি। এই তাপমাত্রায় কোথায় কোথায় সংরক্ষণ করে কিট বিক্রি সম্ভব তা খতিয়ে দেখছে স্বাস্থ্য দফতর। 

 

বন্ধ করুন