বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনা চিকিৎসা হবে একটাই হাসপাতালে, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজকে সাজাচ্ছে সরকার
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

করোনা চিকিৎসা হবে একটাই হাসপাতালে, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজকে সাজাচ্ছে সরকার

  • প্রাথমিক খবর অনুসারে, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা বাড়িয়ে ৩,০০০ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

চাপ সামলাতে পারছে না বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল। তাই আরও বড় পরিসরে করোনাভাইরাস চিকিৎসায় পরিকাঠামো তৈরি করতে উদ্যোগী হল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। জানা গিয়েছে, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল খালি করে দিয়ে সেখানে তৈরি হবে করোনা চিকিৎসার উৎকর্ষ কেন্দ্র। আনুষ্ঠানিকভাবে সেকথা ঘোষণা না-হলেও সোমবার দুপুর থেকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে রোগীদের অন্যত্র সরানোর কাজ শুরু হয়েছে। বন্ধ করা হয়েছে নতুন রোগী ভর্তি।

নবান্ন সূত্রের খবর, গোটা কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালকে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের জন্য খালি করে ফেলতে চলেছে রাজ্য সরকার। গোটা হাসপাতালটিকে তৈরি করা হবে করোনা চিকিৎসার উৎকর্ষ কেন্দ্র হিসাবে। স্বাস্থ্যকর্তাদের যুক্তি, যাদের আগে থেকে অন্য কোনও শারীরিক সমস্যা রয়েছে তাদের মধ্যেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার বেশি। ফলে প্রাণহানি এড়াতে সংক্রমণের চিকিৎসার সঙ্গে অন্যান্য শারীরিক সমস্যার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের প্রয়োজন। আর কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের প্রথিতযশা চিকিৎসকদের এই কাজে নিয়োগ করতে চালেছে সরকার।

স্বাস্থ্য ভবন সূত্রের খবর, প্রাথমিক ভাবে কলকাতার একাধিক হাসপাতালে করোনার চিকিৎসার জন্য আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু তাতে সংক্রমণের আশঙ্কা রয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রাথমিক খবর অনুসারে, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা বাড়িয়ে ৩,০০০ করার পরিকল্পনা রয়েছে। সেই লক্ষ্যে সোমবার থেকেই কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে রোগীদের সরানোর কাজ শুরু হয়েছে। অন্যান্য সরকারি হাসপাতালে সরানো হচ্ছে তাদের। সোমবার দুপুর থেকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বন্ধ হয়েছে রোগী ভর্তি।



বন্ধ করুন