বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > অমিত সংস্পর্শের জের, কোয়ারেন্টাইনে ধনখড় ও বঙ্গ বিজেপির একাধিক নেতা

অমিত সংস্পর্শের জের, কোয়ারেন্টাইনে ধনখড় ও বঙ্গ বিজেপির একাধিক নেতা

রাজ্যপালের দাবি, ১৪ দিন স্বেচ্ছায় বিচ্ছিন্ন ছিলাম। ২৪ জুলাই কোভিড পরীক্ষা করাই। রিপোর্ট কোভিড নেগেটিভ এসেছে। সুস্থ সতেজ রয়েছি।

গত ১৪ দিনে করোনা আক্রান্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে সাক্ষাতের কারণে বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এবং বাংলা বিজেপির একাধিক নেতা। 

ধনখড় ইতিমধ্যে টুইট করে জানিয়েছেন যে, গত ২৪ জুলাই তিনি কোভিড পরীক্ষা করিয়েছেন যার রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়া গিয়েছে। রবিবার অমিত শাহের কোভিড সংক্রমণের খবর প্রকাশিত হওয়ার পরেই রাজ্যপাল টুইট করেন, ‘২০ জুলাই মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত হয়। গুয়াহাটি হয়ে দিল্লি থেকে কলকাতায় ফিরি ওই দিনই। দিল্লি থেকে ফেরার কারণে ১৪ দিন স্বেচ্ছা বিচ্ছিন্ন ছিলাম। ২৪ জুলাই কোভিড পরীক্ষা করাই। রিপোর্ট এসেছে কোভিড নেগেটিভ। সুস্থ ও সতেজ রয়েছি। প্রতিদিন নিয়ম করে সব কিছু পরীক্ষা করা হচ্ছে।’

প্রসঙ্গত, গত ২০ জুলাই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে পশ্চিমবঙ্গের ‘উদ্বেগজনক পরিস্থিতি’ সম্পর্কে নালিশ জানাতে দিল্লি গিয়েছিলেন ধনখড়। রাজ্যের রাজনৈতিক অবস্থা এবং কোভিড অতিমারী নিয়ন্ত্রণে রাজ্য সরকারের ব্যর্থতার কথাও তিনি অমিত শাহের কানে তোলেন।

একই অভিযোগ নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে দরবার করতে গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী তথা রায়গঞ্জের বিজেপি সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী। শাহের অসুস্থতার খবর প্রকাশ্যে এলে তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি আপাতত দিল্লির বাড়িতে স্বেচ্ছা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছি। এখনও পর্যন্ত আমার কোনও উপসর্গ দেখা দেয়নি।’

রাজ্যের উদ্বেগজনক পরিস্থিতির কথা জানাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কিছু দিন আগেই দিল্লিতে গিয়ে দেখা করেন দুই বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ এবং নিশীথ প্রামাণিক। সোমবার সৌমিত্রবাবু জানিয়েছেন, ‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার সময় আমরা সামাজিক দূরত্ববিধি মেনেছি। আপাতত বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছি। কোনও সমস্যা দেখা দিলে পরীক্ষা করাব।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করার পরে রবিবার থেকেই স্বেচ্ছা নির্বাসনে রয়েছেন রাজ্যের আর এক কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন রাজ্য সভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তও।

বন্ধ করুন