বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‌মুখ্যসচিব ও রাজ্য পুলিশের ডিজিকে ফের তলব করলেন রাজ্যপাল, বেঁধে দিলেন সময়ও
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফাইল ছবি
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফাইল ছবি

‌মুখ্যসচিব ও রাজ্য পুলিশের ডিজিকে ফের তলব করলেন রাজ্যপাল, বেঁধে দিলেন সময়ও

  • রাজ্যপালের অভিযোগ, লাগাতার তথ্য চেয়েও কোনও জবাব মেলেনি। রাজ্যের কোনও বিষয়ে তাঁকে অবহিত করা হচ্ছে না। রাজ্যপাল যা কিছুই জানতে চেয়েছেন তাতে নিরুত্তর থেকেছে রাজ্য সরকার ও পুলিশ–প্রশাসন।

আবারও রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্রকে তলব করলেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে সাক্ষাৎ করার জন্য বলা হয়েছে তাঁদের।‌ মঙ্গলবার রাজ্যপাল তাঁর টুইটের মাধ্যমে বলেছেন, জনস্বার্থে তিনি মুখ্যসচিব এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি–কে তলব করছেন। এবং ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে যাতে তাঁরা রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেন সেটা তিনি স্পষ্ট করে টুইটে লিখেছেন।

একইসঙ্গে রাজ্যপালের অভিযোগ, লাগাতার তথ্য চেয়েও কোনও জবাব মেলেনি। রাজ্যের কোনও বিষয়ে তাঁকে অবহিত করা হচ্ছে না। রাজ্যপাল যা কিছুই জানতে চেয়েছেন তাতে নিরুত্তর থেকেছে রাজ্য সরকার ও পুলিশ–প্রশাসন। রাজ্যপালের আরও অভিযোগ, একটানা বহুদিন কোনও জবাব মেলেনি রাজ্যের তরফ থেকে। এ ছাড়া রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় কী ঘটনা ঘটছে সে ব্যাপারে রাজ্যপালকে জানাতে ব্যর্থ এই পুলিশ–প্রশাসন। তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, বারবার সংবিধান লঙ্ঘন করেছে রাজ্য সরকার।

এদিকে, রাজ্যপালের বিরুদ্ধেই সংবিধান লঙ্ঘন করার অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। তিনি এদিন বলেন, ‘রাজ্যপাল আর একটা সংবিধান–বিরোধী কাজ করলেন। তার কারণ, সংবিধানে পরিষ্কার লেখা আছে রাজ্যপালের কী ক্ষমতা। রাজ্যপাল সংবিধানের ১৬৭ ধারা অনুযায়ী মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিতে পারেন। সংবিধান অনুযায়ী, ডিজি বা মুখ্যসচিবকে তলব করার কোনও অধিকার রাজ্যপালের নেই। সুতরাং তিনি যা করছেন তা ভুল। আর যদি করেই থাকেন তবে তা গোপনে করতে পারতেন, টুইট করলেন কেন?‌ এটা জনসমক্ষে এনে তিনি অন্যায় করেছেন।’‌

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এ ব্যাপারে বলেন, ‘‌রাজ্যে যে রকম আইনশৃঙ্খলার অবনতি হয়েছে, বিরোধী দল মিছিল করতে পারবে না, নয়তো গুলি করে দেওয়া হবে— এ ব্যাপারে জানার জন্য রাজ্যপাল তলব করতেই পারেন। এতে আপত্তির কী আছে?‌ এখন রাজ্যপালের ডাকে যদি কেউ সাড়া না দেয় সেটা লোকজন জানতে পারবেন। সে জন্যই টুইট করে জনসমক্ষে রাজ্যপাল জানিয়েছেন যে বারবার ডাকা সত্ত্বেও কেউ আসছে না।’‌

বন্ধ করুন