বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > মঙ্গলবার সকালে রাজস্থান থেকে বাংলার ১০০০ শ্রমিককে নিয়ে ফিরছে বিশেষ ট্রেন, সম্মতি নবান্নর
আজমের থেকে বিশেষ ট্রেনে মঙ্গলবার সকালে বাংলায় ফিরছেন ১,০০০ পরিযায়ী শ্রমিক। (AFP)
আজমের থেকে বিশেষ ট্রেনে মঙ্গলবার সকালে বাংলায় ফিরছেন ১,০০০ পরিযায়ী শ্রমিক। (AFP)

মঙ্গলবার সকালে রাজস্থান থেকে বাংলার ১০০০ শ্রমিককে নিয়ে ফিরছে বিশেষ ট্রেন, সম্মতি নবান্নর

  • দুর্গাপুর ও ডানকুনিতে সাময়িক বিরতি দিয়ে সকালেই হাওড়া পৌঁছবে এই ট্রেন।

রাজস্থানে আটকে পড়া রাজ্যের ১,০০০ পরিযায়ী শ্রমিককে ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগী পশ্চিমবঙ্গ সরকার। আজমের থেকে বিশেষ ট্রেনে মঙ্গলবার সকালে বাংলায় ফিরছেন ওই শ্রমিকরা।

রবিবার পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রকের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে যে, সোমবার আজমের থেকে রওনা দিয়ে ৫ তারিখ সকালে এসে পৌঁছবে বিশেষ নন-স্টপ ট্রেনটি। 

লকডাউনে আটকে পড়া সমস্ত ভিনরাজ্যের শ্রমিকদের ফেরাতে রাজ্য সরকারগুলি উদ্যোগী হওয়ায় কিছুটা ভর্ৎসনার সুরে সমস্ত রাজ্য সরকারের মুখ্য সচিবদের উদ্দেশে রবিবার সকালে চিঠি পাঠান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভল্লা। 

সব রাজ্যের মুখ্যসচিবদের উদ্দেশে লেখা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিবের চিঠি।
সব রাজ্যের মুখ্যসচিবদের উদ্দেশে লেখা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিবের চিঠি।

চিঠিতে তিনি জানান, ভিনরাজ্যে আটকে পড়া সমস্ত শ্রমিককেই ঘরে ফেরার ব্যবস্থা করা অপ্রয়োজনীয়। শুধুমাত্র যাঁরা রোজগার হারিয়ে বিপন্ন অবস্থায় রয়েছেন, তাঁদেরই নিজের রাজ্যে ফেরানো হোক। এই কথা মাথায় রেখেই বিচ্ছিন্ন শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে রাজ্য সরকারগুলিকে উদ্যোগী হওয়ার পরামর্শ দেন স্বরাষ্ট্র সচিব। 

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য সচিবকে লেখা রাজস্থানের মুখ্যসচিব ডি বি গুপ্তার চিঠি।
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য সচিবকে লেখা রাজস্থানের মুখ্যসচিব ডি বি গুপ্তার চিঠি।

অন্য দিকে, শনিবার পশ্চিমবঙ্গে মুখ্য সচিব রাজীবা সিনহাকে চিঠি মারফৎ রাজস্থানের মুখ্য সচিব ডি বি গুপ্তা জানান, আজমের থেকে বাংলার আটকে পড়া তীর্থযাত্রীদের নিয়ে একটি বিশেষ ট্রেন সোমবার হাওড়ার উদ্দেশে রওনা দেবে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নির্দেশ মেনেই এই ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে তিনি জানান। 

রাজস্থানের মুখ্যসচিবকে প্রত্যুত্তরে লেখা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব রাজীবা সিনহার চিঠি।
রাজস্থানের মুখ্যসচিবকে প্রত্যুত্তরে লেখা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব রাজীবা সিনহার চিঠি।

সেই চিঠির উত্তরে এ দিন রাজ্যের মুখ্য সচিব রাজীবা সিনহা তাঁর চিঠিতে জানিয়েছেন, ওই ট্রেনের সূচিতে বাংলার শ্রমিকদের সুবিধার্থে কিছু পরিবর্তন করা প্রয়োজন। তিনি জানিয়েছেন, ট্রেনটি যাতে দুপুরের মধ্যে হাওড়ায় পৌঁছায় তা সুনিশ্চিত করতে হবে কারণ রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় শ্রমিকদের পৌঁছানো ও তার আগে তাঁদের স্ক্রিনিং প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে সময় লাগবে। একই সঙ্গে হাওড়ার পথে দুর্গাপুর ও ডানকুনিতে ট্রেনটি দাঁড়ালে সুবিধা হবে।

জানা গিয়েছে, বাংলার অনুরোধ মেনে সোমবার সকালে বিচ্ছিন্ন শ্রমিকদের নিয়ে রওনা দিচ্ছে বিশেষ ট্রেনটি। সকালেই হাওড়া পৌঁছবে এই ট্রেন।  

বন্ধ করুন