বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রমণের নতুন রেকর্ড, সোমবার মিলল ৬২৪ জন রোগী, মৃত ১৪
করোনায় আরও ভাল চিকিৎসার দাবিতে কলকাতায় ফেস গার্ড পরে প্রতিবাদে কংগ্রেসকর্মীরা।  (REUTERS)
করোনায় আরও ভাল চিকিৎসার দাবিতে কলকাতায় ফেস গার্ড পরে প্রতিবাদে কংগ্রেসকর্মীরা।  (REUTERS)

পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রমণের নতুন রেকর্ড, সোমবার মিলল ৬২৪ জন রোগী, মৃত ১৪

  • এদিনও সংক্রমণে এগিয়ে কলকাতা। সেখানে ১৮০ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। এর পর রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা।

রবিবারের পর সোমবার। ফের পশ্চিমবঙ্গে নতুন রেকর্ড হল করোনা সংক্রমণে। এই প্রথম ১ দিনে খোঁজ মিলল ৬০০-র বেশি করোনা রোগীর। এদিন ৬২৪ জন করোনারোগীর খোঁজ মিলেছে যা একদিনে সর্বোচ্চ। মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের। ফলে পশ্চিমবঙ্গে মোট মৃতের সংখ্যা হয়েছে ৬৫৩। 

সোমবার রাজ্য সরকারের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, রাজ্যে মোট করোনারোগীর সংখ্যা হয়েছে ১৭,৯০৭। এর মধ্যে ১১,৭১৯ জন সুস্থ হয়ে গিয়েছেন। রাজ্যে বর্তমানে করোনা আক্রান্ত অবস্থায় চিকিৎসাধীন ৫,৫৩৫। সোমবার পশ্চিমবঙ্গে মোট ৫২৬ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। 

এদিনও সংক্রমণে এগিয়ে কলকাতা। সেখানে ১৮০ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। এর পর রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। সেখানে নতুন রোগীর সংখ্যা ১২১। হাওড়ায় ৯৫, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৭৬ জনের দেহে করোনা মিলেছে। 

উত্তরবঙ্গের মধ্যে মালদার অবস্থা ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। সেখানে রবিবার ৫১ জন নতুন রোগী মিলেছিল। সোমবার মিলেছে আরও ২৮ জন। সংক্রমণ রোধে ইতিমধ্যে পদক্ষেপ করতে শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। দার্জিলিং জেলায় সোমবার নতুন করে ৩০ জনের দেহে সংক্রমণ মিলেছে। এই সংখ্যাও যথেষ্ট উদ্বেগের। 

সোমবার মৃতদের মধ্যে ৬ জন কলকাতার ও ৩ জন হাওড়ার। বাকিও কলকাতা লাগোয়া জেলাগুলিরই বাসিন্দা। এদিন পশ্চিম মেদিনীপুরে মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। 

তবে আশার কথা সোমবার কলকাতায় করোনা অ্যাক্টিভের সংখ্যা কমেছে। এদিন সেখানে করোনা আক্রান্ত অবস্থায় চিকিৎসাধীনের সংখ্যা কমেছে ১৬৫।

 

বন্ধ করুন