বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অবশেষে খুলতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গের চিড়িয়াখানাগুলি, চালু হচ্ছে জঙ্গল পর্যটনও
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

অবশেষে খুলতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গের চিড়িয়াখানাগুলি, চালু হচ্ছে জঙ্গল পর্যটনও

  • বনদফতরের তরফে শুক্রবার জানানো হয়েছে, ২ অক্টোবর থেকে খুলে যাবে আলিপুর চিড়িয়াখানা-সহ সমস্ত চিড়িয়াখানা। ওই দিন খুলবে বেঙ্গল সাফারি পার্কও। আলিপুর চিড়িয়াখানায় ঢুকতে হবে অনলাইনে টিকিট কেটে।

করোনার লকডাউনের জেরে প্রায় ৬ মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে খুলতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত চিড়িয়াখানা ও জঙ্গল পর্যটন। শুক্রবার রাজ্যের বনদফতরের পক্ষে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। জানানো হয়েছে, ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে যাবে জঙ্গল পর্যটন। ২ অক্টোবর থেকে খুলবে রাজ্যের চিড়িয়াখানাগুলি। খুলে যাবে শিলিগুড়ির বেঙ্গল সাফারি পার্কও। 

লকডাউনের জেরে গত মার্চ থেকে বন্ধ পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত চিড়িয়াখানা। আলিপুর চিড়িয়াখানা-সহ সমস্ত চিড়িয়াখানায় দর্শকদের প্রবেশ বন্ধ। একই সঙ্গে বন্ধ জঙ্গল পর্যটনও। ফলে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছেন ডুয়ার্স ও সুন্দরবনের পর্যটনব্যবসায়ীরা। শীতের মুখে পর্যটনে নিষেধাজ্ঞা ওঠায় খুশি তারা। 

বনদফতরের তরফে শুক্রবার জানানো হয়েছে, ২ অক্টোবর থেকে খুলে যাবে আলিপুর চিড়িয়াখানা-সহ সমস্ত চিড়িয়াখানা। ওই দিন খুলবে বেঙ্গল সাফারি পার্কও। আলিপুর চিড়িয়াখানায় ঢুকতে হবে অনলাইনে টিকিট কেটে। প্রতিদিন মিলবে মাত্র ৫,০০০ টিকিট। টিকিট নিয়ে চিড়িয়াখানার গেটে পৌঁছলে হবে শারীরিক পরীক্ষা। তাতে করোনার উপসর্গ দেখা গেলে ঢুকতে দেওয়া হবে না চিড়িয়াখানর ভিতরে। টিকিটের টাকা ফেরতও পাবেন না সেই ব্যক্তি। 

একইরকমভাবে সমস্ত চিড়িয়াখানায় প্রতিদিন সর্বোচ্চ দর্শকসংখ্যা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। জঙ্গল পর্যটনে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনে চালু থাকবে হাতি ও জিপ সাফারি।

বর্ষা শেষে সাধারণত ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে খুলে যায় উত্তরবঙ্গের জঙ্গলগুলি। পুজোর মুখে পর্যটনে নিষেধাজ্ঞা ওঠায় খুশি স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। তবে থাকছেই সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা। 

 

বন্ধ করুন