বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মমতার পথে হেঁটে আদালতের ক্ষমতা নিয়ে কটাক্ষ বিপ্লব দেবের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

মমতার পথে হেঁটে আদালতের ক্ষমতা নিয়ে কটাক্ষ বিপ্লব দেবের

  • দিন পনেরো আগেই আদালতের নির্দেশকে বিদ্রুপ করতে শোনা গিয়েছিল মমতাকে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পথে হেঁটে আদালতের ক্ষমতা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করতে শোনা গেল ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকেও। সম্প্রতি ভাইরাল একটি ভিডিয়োয় তাঁকে বলতে শোনা যায়, আদালত অবমাননার দায়ে কার জেল হয়েছে? যা নিয়ে আবার পালটা আক্রমণ করেছেন মমতা।

সম্প্রতি একটি ভিডিয়োয় বিপ্লব দেবকে বলতে শোনা যায়, ‘অনেকে বলেন এটা করলে আদালত অবমাননা হবে। আদালত অবমাননার দায়ে কার জেল হয়েছে? আমি আছি তো। জেলে গেলে আমি আগে যাব! এত সহজ নয়। যিনি সরকার চালান তাঁর হাতে সব ক্ষমতা। জেলে যাওয়ার জন্য পুলিশ চাই। পুলিশ কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর অধীনে। পুলিশ বলবে, আমরা কাউকে খুঁজে পাইনি। আদালত কী করবে?’

বিপ্লব দেবের এই মন্তব্য নিয়ে ভবানীপুরে এক সভা থেকে তাঁকে নিশানা করেন মমতা। বলেন, ‘ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বলছেন কোর্ট কী করবে? আমি যা করব, কোর্ট তাই করবে। আমি কাউকে মানি না। একজন মুখ্যমন্ত্রী যা খুশি বলছেন। এটা এক ধরনের ধ্বংসাত্মক মনোভাব।’ যদিও দিন পনেরো আগেই আদালতের নির্দেশকে বিদ্রুপ করতে শোনা গিয়েছিল মমতাকে।

গত ৮ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি, প্রতারণা ও খুন সহ শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে পুলিশের দায়ের করা একাধিক মামলায় বিরোধী দলনেতাকে রক্ষাকবচ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। ৩টি মামলায় তদন্তপ্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ জারি করে বিচারপতি রাজশেখর মান্থা নির্দেশ দেন, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে নতুন কোনও FIR হলে গুরুতর পদক্ষেপ করার আগে আদালতের অনুমতি নিতে হবে। কোনও অবস্থাতেই গ্রেফতার করা যাবে না তাঁকে। আদালতের এই নির্দেশের পর মমতা আদালতকে বিদ্রুপ করে বলেছিলেন, ‘খুনের মামলায় তথ্য থাকলেও এফআইআর করা যাবে না? ভগবানের জ্যেষ্ঠপুত্র?’

 

বন্ধ করুন