বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > গঙ্গাসাগর কি দুয়োরানি? মমতার প্রশ্নের জবাব দিলেন দিলীপ ঘোষ
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

গঙ্গাসাগর কি দুয়োরানি? মমতার প্রশ্নের জবাব দিলেন দিলীপ ঘোষ

  • বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য আগেই জানিয়েছিলেন, গঙ্গাসাগরকে খুব শীঘ্রই জাতীয় মেলা হিসাবে ঘোষণা করা হবে।

জাঁকিয়ে শীত পড়েছে বাংলা জুড়ে। আর তার মধ্যেই গঙ্গাসাগর ইস্যুতে সরগরম বাংলার রাজনীতি। তরজাও চলছে পুরোদমে। সোমবারই মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, কুম্ভের মতো গঙ্গাসাগরও আমাদের জাতীয় মেলা হোক। কুম্ভমেলার সব টাকা কেন্দ্রীয় সরকার দেয়। এখানে এক টাকাও দেয় না। কুম্ভমেলা সুয়োরানি হলে, গঙ্গাসাগর কি দুয়োরানি? প্রশ্ন তুলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। একেবারে সরাসরি বঞ্চনার অভিযোগ। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আঙুল তুলে তিনি বলেছিলেন, কেন্দ্রকে বলা হচ্ছে সেতু তৈরির জন্য। কেন্দ্র বলেছিল তাজপুর বন্দরের ৭৪ শতাংশ দিলে সেতু করে দেব। আমরা দিলাম কিন্তু কেন্দ্র কোনও উত্তর দিচ্ছে না। অভিযোগ তুলেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এবার গঙ্গাসাগরকে কেন্দ্র করে মুখ্যমন্ত্রীর এই বঞ্চনার অভিযোগের উত্তর দিলেন বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি জানিয়েছেন, গঙ্গাসাগরের উন্নয়ন চাইলে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে কথা বলুন। রাজ্য সরকার চাইলে কেন্দ্র সাহায্য করবে। সদিচ্ছা থাকতে হবে। পাশাপাশি গঙ্গাসাগরের পরিকাঠামো নিয়েও রাজ্যকেই দুষেছেন দিলীপ ঘোষ।

অন্যদিকে বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য আগেই জানিয়েছিলেন, গঙ্গাসাগরকে খুব শীঘ্রই জাতীয় মেলা হিসাবে ঘোষণা করা হবে। বিধানসভা ভোটের ইস্তেহারেই এই ঘোষণা ছিল। মুখ্য়মন্ত্রী এনিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে কথা বলেননি। তখন তিনি সংখ্য়ালঘু সংরক্ষণ নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। এভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। 

 

বন্ধ করুন