বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বড়দিনে জাতীয় ছুটি নেই কেন, বিজেপিকে ঠুকে প্রশ্ন মমতার
অ্যালেন পার্কে মমতা
অ্যালেন পার্কে মমতা

বড়দিনে জাতীয় ছুটি নেই কেন, বিজেপিকে ঠুকে প্রশ্ন মমতার

  • তিনি প্রশ্ন করেন যে খ্রিস্টানদের ভাবাবেগের প্রতি কেন সম্মান দেখাচ্ছে না বিজেপি।

ভোট আসছে। তাই অরাজনৈতিক মঞ্চেও ঘুরে ফিরে আসছে রাজনীতির কথা। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতার অ্যালেন পার্কে ক্রিসমাস কার্নিভালের উদ্বোধন করে নাম না করে ঠুকলেন কেন্দ্রের শাসক দল ভারতীয় জনতা পার্টিকে। 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন করেন যে আদৌ কি দেশে ধর্মনিরপেক্ষতা আছে। তিনি বলেন যে ঘৃণার রাজনীতি চলছে দেশে। খ্রিস্ট ধর্মালম্বীদের সামনে এভাবেই ঘুরিয়ে বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবছর কোভিডের জেরে নানান বিধিনিষেধ নিয়ে শুরু হচ্ছে কার্নিভাল। সেখানেই মমতা প্রশ্ন করেন যে কেন ২৫ ডিসেম্বর, অর্থাৎ ক্রিসমাসের দিন জাতীয় ছুটি ঘোষণা করা হচ্ছে না। খ্রিস্টানদের কী দোষ করেছে সেই প্রশ্ন করেন মমতা। তিনি বলেন যে গত বছরই এই দাবি করেছেন তিনি। বিজেপি সরকার আসার পর এই নিয়মে বদল হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন যে অনেক মানুষ দেশকে ভাগ করতে চায়। পশ্চিমবঙ্গে যে বড়দিনে রাজ্য সরকারি অফিস কাছারিতে ছুটি সেটিও মনে করিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি প্রশ্ন করেন যে খ্রিস্টানদের ভাবাবেগের প্রতি কেন সম্মান দেখাচ্ছে না বিজেপি। মমতার দাবি যে তাঁরা সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হলেও কেন্দ্রের শাসক দল সেই সম্মান প্রদর্শন করে না। 

তবে মমতার এই কথাকে উড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি। কার্যত অমিত শাহের সুরেই তুষ্টীকরণের রাজনীতির কথা বলেছেন রাজ্যে দলের সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। তাঁর অভিযোগ যে মমতাই ধর্মনিরপেক্ষতার আদর্শকে ভঙ্গ করেছিলেন ইমাম ভাতা নিয়ে এসে। নবান্ন থেকে যে রোজ রাজনৈতিক বক্তব্য রাখেন তাঁর সংবিধানের পাঠ পড়ানোর কোনও অধিকার নেই বলেই ধারালো প্রতিক্রিয়া সায়ন্তনের। 

 

বন্ধ করুন