বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > টিকার পর এবার সিরিঞ্জ সংকটে ভুগছে বাংলা, ঘাটতির নেপথ্যে কারণ কী?
ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)

টিকার পর এবার সিরিঞ্জ সংকটে ভুগছে বাংলা, ঘাটতির নেপথ্যে কারণ কী?

  • প্রায় ২০ লক্ষ সিরিঞ্জের ঘাটতি দেখা দিয়েছে রাজ্যে।

গত বেশ কয়েক মাস ধরেই রাজ্যে টিকা সংকটের অভিযোগ উঠেছে। কখনও কোভ্যাক্সিনের স্টক শেষ হয়েছে তো কখনও অভাব দেখা দিয়েছে কোভিশিল্ডের। এই আভহে বারংবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ করেছে রাজ্য। বঞ্চনার অভিযোগ অব্যাহত থাকল। তবে এবার টিকা নয়, উঠেছে সিরিঞ্জের অভাবের অভিযোগ। এই নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে একটি চিঠি দিয়েছে নবান্ন। তাতে জানানো হয়েছে, প্রায় ২০ লক্ষ সিরিঞ্জের ঘাটতি দেখা দিয়েছে রাজ্যে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে যে যত টিকার ডোজ কেন্দ্র পাঠায়, তত সংখ্যক সিরিঞ্জও সঙ্গে পাঠানো হয় রাজ্যে। রাজ্যে ২ কোটি ৯৮ লক্ষ ডোজ ভ্যাকসিন পাঠিয়েছে। পাশাপাশি রাজ্য সরকার নিজেদের টাকায় ১৭ লক্ষ ডোজ কোভিড টিকা কিনেছিল। তবে রাজ্য সেই সময় সমসংখ্যক সিরিঞ্জ কেনেনি। রাজ্য কিনেছিল মাত্র ১০ লক্ষ সিরিঞ্জ।

এদিকে কোভিশইল্ডের ডোজের সংখ্যার তারতম্যের কারণেও সিরিঞ্জের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। সাধারণ একটি ভায়ালে ১০টি ডোজ থাকে কোভিশিল্ডের। তবে অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে যএ একটি ভায়াল থেকে ১১ জনকেও টিকা দেওয়া যায়। টিকা নষ্টের সমস্যার কথা মাথায় রেখে এই অতিরিক্ত টিকা থাকে ভায়ালে। তবে রাজ্যে টিকার অপচয় প্রায় হয়নি। এদিকে কেন্দ্র টিকার ভায়াল পিছু ১০টি করেই সিরিঞ্জ পাঠিয়েছে। এর জেরে টিকা আর সিরিঞ্জের অঙ্ক মিলছে না এখন। কেন্দ্রকে রাজ্য জানিয়েছে, আপাতকালীন ভিত্তিতে এই ২০ লক্ষ সিরিঞ্জ রাজ্যে না পাঠালে টিকাকরণ প্রক্রিয়া ব্যাহত হতে পারে।

বন্ধ করুন