সুজন চক্রবর্তী। ফাইল ছবি
সুজন চক্রবর্তী। ফাইল ছবি

বোঝাপড়া হয়ে গিয়েছে, তার পর গলার জোর বেড়েছে মমতার: সুজন

সুজনের দাবি, ‘দুপক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দালের কার্যকরী কোনও পদক্ষেপ করবে না তারা। এমনটাই বোঝাপড়া হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে।’

দিল্লি হিংসা নিয়ে মন্তব্য করে সিপিএমের নিশানায় তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, সবাই আগে যা বলে দিয়েছে তা এতদিনে বুঝতে পারলেন মমতা। একই সঙ্গে এদিন বিজেপির সঙ্গে তৃণমূলের আঁতাঁতের অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

সুজনবাবু বলেন, ‘যতক্ষণ অমিত শাহের সামনে ছিলেন ততক্ষণ কোনও কথা বলার সাহস হয়নি দিদিমণির। অমিত শাহ যখন কলকাতায় ছিলেন তখনও তিনি কিছু বলেননি। শাহ কলকাতা ছাড়তেই তাঁর গলার জোর বেড়েছে। আসলে বোঝাপড়া যা হওয়ার তা হয়ে গিয়েছে।’

সুজনের দাবি, ‘দুপক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দালের কার্যকরী কোনও পদক্ষেপ করবে না তারা। এমনটাই বোঝাপড়া হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে।’ উদাহরণ দিয়ে সুজন বলেন, ‘তেমন হলে ট্রাম্পের সফরে রাষ্ট্রপতির নৈশভোট বয়কট করেছিল বেশ কয়েকটি বিরোধী দল। তখন কেন পদক্ষেপ করেনি তৃণমূল।’

বলে রাখি, এদিন দিল্লি হিসাংকে রাষ্ট্রের মদতে পরিকল্পিত সন্ত্রাস বলে মন্তব্য করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিজেপিকে লাইনে রাখতে’ চায় সিপিএম ও কংগ্রেস। এদিন পালটা তৃণমূলের বিরুদ্ধে কটাক্ষ ছুড়ে দিলেন সুজনবাবু।


বন্ধ করুন