বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সম্পত্তি বিবাদের জের, দাদা–দিদিকে কোপাল ভাই, শিয়ালদহে আটক করল পুলিশ
দাদা–দিদিকে এলোপাথাড়ি কাটারির কোপ বসিয়ে দিল।

সম্পত্তি বিবাদের জের, দাদা–দিদিকে কোপাল ভাই, শিয়ালদহে আটক করল পুলিশ

  • সম্পত্তি বিবাদের জেরেই সায়ক নিজের দাদা–দিদিকে খুন করতে চেয়েছিল। সায়ক সম্পর্কে ছোট ভাই। কাজ কিছু করে না। বেকার জীবনে বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে আড্ডা মেরে, নেশা করে বেড়ায়। কিছুদিন ধরে পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে সে দাদা–দিদির সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়ে।

সম্পত্তির একটিও ভাগ হবে না। সব ভোগ করার মানসিকতা নিয়েই দাদা–দিদিকে কুপিয়ে খুন করার চেষ্টা করল এক যুবক। সম্পত্তির ভাগ–বাঁটোয়ারা নিয়ে মতান্তর থেকেই নৃশংস কাণ্ড ঘটাল ২৮ বছরের যুবক। নিজের দাদা–দিদিকে এলোপাথাড়ি কাটারির কোপ বসিয়ে দিল। খুন করার চেষ্টা করলেও প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তাঁরা। ওই যুবককে শিয়ালদহ থেকে আটক করা হয়েছে।

ঠিক কী ঘটেছে শিয়ালদহে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, আজ, রবিবার সকালে শিয়ালদহের জাস্টিস মন্মথ মুখার্জি রো’র বাসিন্দা সায়ক খাসনবিশ হঠাৎ কাটারি নিয়ে হাজির হয়। মুহূর্তের মধ্যে নিজের দাদা–দিদিকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। দাদা–দিদি কিছু বুঝে ওঠার আগেই হামলা করে সে। এই হামলায় রক্তাক্ত হন তাঁরা। তাঁদের এনআরএস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পুলিশ ঘটনার কথা শুনে হামলাকারী সায়ককে আটক করেছে।

কী তথ্য পেয়েছে পুলিশ?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, সম্পত্তি বিবাদের জেরেই সায়ক নিজের দাদা–দিদিকে খুন করতে চেয়েছিল। সায়ক সম্পর্কে ছোট ভাই। কাজ কিছু করে না। বেকার জীবনে বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে আড্ডা মেরে, নেশা করে বেড়ায়। কিছুদিন ধরে পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে সে দাদা–দিদির সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। খুনের হুমকি দেয়। আর আজ খুন করতে উদ্যত হয়।

পরিবার ঠিক কী বলছে?‌ পরিবার সূত্রে খবর, সম্প্রতি সায়ক হুঁশিয়ারি দিত, সুপারি কিলার দিয়ে খুন করার। তার দিদি বলেন, ‘‌ছোট ভাই কিছু করে না, বেকার। বাবার সব সম্পত্তি ওকেই লিখে দিতে হবে। আমরা কেউ কোনও ভাগ পাব না। বাবার সঙ্গেও এই নিয়ে ঝগড়া হয়। এমনকী মারধরও করেছে। হুমকি দেয় সুপারি কিলার দিতে খুন করিয়ে দেবে।’‌

বন্ধ করুন