বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > PM কিষাণের অনুষ্ঠানে ডাকা হয়নি বাংলাকে! হোয়াটসঅ্যাপে 'আমন্ত্রণ', দাবি কেন্দ্রের
কিষাণ সম্মান নিধির অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদী (ছবি সৌজন্যে পিটিআই)
কিষাণ সম্মান নিধির অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদী (ছবি সৌজন্যে পিটিআই)

PM কিষাণের অনুষ্ঠানে ডাকা হয়নি বাংলাকে! হোয়াটসঅ্যাপে 'আমন্ত্রণ', দাবি কেন্দ্রের

  • শুক্রবার সকালে ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠান প্রধানমন্ত্রী। তবে সেই অনুষ্ঠানে নাকি আমন্ত্রণই জানানো হয়নি পশ্চিমবঙ্গকে।

প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্পের অষ্টম কিস্তি কৃষকদের অ্যাকাউন্টে পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শুক্রবার সকালে ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠান প্রধানমন্ত্রী। তবে সেই অনুষ্ঠানে নাকি আমন্ত্রণই জানানো হয়নি পশ্চিমবঙ্গকে। এদিন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরের তরফে এক টুইট করে এই দাবি করা হয়।

এদিন বাংলা-সহ দেশের ১০ কোটি কৃষকের অ্যাকাউন্টে পাঠানো হল ১৯ হাজার কোটি টাকা। বাংলার কৃষকরা এদিনই প্রথম এই প্রকল্পের কিস্তি পেলেন। ভোটের সময় এই প্রকল্পকে ইস্যু করে মমতাকে বারংবার বিঁধেছিল বিরোধী বিজেপি। বিজেপির দাবি ছিল, মমতা ইচ্ছে করে কৃষকদের পাওনা আটকে রেখেছেন। তবে এদিন এই প্রকল্পের প্রথম কিস্তি পান বাংলার প্রায় ৭ লক্ষ কৃষক। আর এই নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। রাজ্যবাসীকে খোলা চিঠিতে মমতা দাবি করেছেন, কেন্দ্রের এই আর্থিক সুবিধা পেতে বাংলার কৃষকদের জন্য লড়াই চালিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

পাশাপাশি রাজ্যের প্রতি কেন্দ্রের বঞ্চনার অব্যাহত রয়েছে, তা বোঝাতে এদিন রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয় যে কিষণ সম্মান নিধির আজকের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি রাজ্যকে। এদিকে এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে কেন্দ্রের তরফে পালটা দাবি করা হয়, কোনও রাজ্যকে আলাদা ভাবে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। পশ্চিমবঙ্গ সহ সব রাজ্যের নাডাল অফিসারদের একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ রয়েছে। সেখানে আজকের অনুষ্ঠানের বিশদ দেওয়া হয়। যেহেতু বাংলা এই প্রকল্পে নতুন, তাই হয়ত তারা নিয়মটা জানে না।

এদিকে এর প্রেক্ষিতে প্রশ্ন উঠছে, কীভাবে প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানের মতো একটি গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্টের বিষয়ে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে জানানো হয়। এহেন সরকারি অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ আনুষ্ঠানিক ভাবে জানানোই রীতি।

বন্ধ করুন