বাংলা নিউজ > ব্র্যান্ড পোস্ট > Samsung-এর Galaxy A51 ও Galaxy A71-এর প্রাইভেসি ফিচারে মজে জেন জেড ও মিলেনিয়াল
Samsung-এর Galaxy A51 ও Galaxy A71-এর প্রাইভেসি ফিচারে মজে জেন জেড ও মিলেনিয়াল (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)
Samsung-এর Galaxy A51 ও Galaxy A71-এর প্রাইভেসি ফিচারে মজে জেন জেড ও মিলেনিয়াল (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)

Samsung-এর Galaxy A51 ও Galaxy A71-এর প্রাইভেসি ফিচারে মজে জেন জেড ও মিলেনিয়াল

  • ‘কুইক সুইচ’ এমন একটি ফিচার যা আপনাকে গ্যালারি, ওয়েব ব্রাউজার, হোয়াটসঅ্যাপ এবং অন্যান্য আপের প্রাইভেট থেকে পাবলিক ভার্সনে দ্রুত সুইচ করতে দেয়, শুধুমাত্র পাওয়ার কি-তে একটি ডাবল ক্লিকে!

জেন জেড ও নতুন প্রজন্ম অনেকটা সময় কাটান তাঁদের স্মার্টফোনে। সেটা ইনস্টাগ্রাম বা স্ন্যাপচ্যাটে ফোটো আপলোড করা হোক কিংবা ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার অথবা হোয়াটসঅ্যাপে অন্যের সঙ্গে কথোপকথনই হোক না কেন, অন্য কোনেও গ্যাজেটের তুলনায় তাঁদের দৈনন্দিন জীবনে স্মার্টফোন ব্যবহৃত হয় বেশি।

স্যামস্যাং (Samsung)-এর এই যুগান্তকারী Galaxy A51 ও Galaxy A71 স্মার্টফোন নতুন প্রজন্ম ও জেন জেডকে নিয়ে যাবে সমগ্র নতুন এক দুনিয়ায়। দুটি স্মার্টফোনে রয়েছে সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে, কোয়াড-ক্যামেরা সেটআপ এবং দীর্ঘ আয়ুসম্পন্ন ব্যাটারি। এগুলি যে কোনও কাজ দৃঢ়তার সঙ্গে করে।

আরও ভালো বিষয় হল, মিলেনিয়াল ও জেন জেড যে এখন চাপমুক্ত জীবন ও নিজেদের ইচ্ছেমতো ‘অল্ট জেড লাইফ’ কাটাতে পারে, সেজন্য এই দুটি স্মার্টফোনকে ধন্যবাদ। এটা এমন এক জীবন যেখানে আপনার ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলি থাকবে ব্যক্তিগতই। আপনি ছাড়া কেউ তা অ্যাকসেস করতে পারবে না। ইন্ডাস্ট্রির প্রথম দুটি প্রাইভেসি ইনোভেশন তথা ‘কুইক সুইচ’ ও ‘কনটেন্ট সাজেশন’-এর সঙ্গে পরিচিত হলে আপনি আর পিছনে তাকাতে চাইবেন না।

প্রাইভেসি প্রথম!

আপনি যদি এমন কেউ হন, যিনি রোজ স্মার্টফোন ব্যবহার করতে ভালোবাসেন, তাহলে সর্বদা প্রাইভেসি রক্ষা করতেও ভালোবাসবেন আপনি। আমাদের অধিকাংশই এমন পরিস্থিতির সঙ্গে পরিচিত যেখানে কেউ একটা ছবি নেবে বলে আমাদের ফোন ব্যবহার করেছিলেন। শেষপর্যন্ত তার মধ্যে প্রাইভেট কিছু দেখে ফেলেছেন। সেইসঙ্গে মনে করুন যখন কোনেও বন্ধু বা পরিবারের কোনো সদস্য আপনার নতুন স্মার্টফোন নেড়েচেড়ে দেখছিলেন, তখন এমন একটি মেসেজ দেখেছেন। যা দেখার কথা ছিল না।

প্রকৃতপক্ষে, আমাদের ব্যক্তিগত ও গোপনীয় সব তথ্যই আমাদের স্মার্টফোনে স্টোর করা থাকে বলে অন্য কেউ এটা ব্যবহার করার সময় আশঙ্কা তৈরি হতে থাকে। এই আশঙ্কা দূর করতে পাওয়ার কি-তে সহজ একটি ডাবল ক্লিকই যথেষ্ট। এই ফিচারের নাম ‘কুইক সুইচ’। যা Samsung’s Galaxy A51 ও Galaxy A71 স্মার্টফোনে অনন্য।

এটা আরও ভালোভাবে বুঝতে অভিনেত্রী রাধিকা মদনের জীবন থেকে একটা উদাহরণ দেওয়া যাক। এই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, তাঁর বয়ফ্রেন্ডের (অভিনয়ে সানি সিং) জন্য একটি সারপ্রাইজ বার্থডে গিফটের পরিকল্পনা করছেন রাধিকা। যদিও রাধিকার অজান্তেই হঠাৎ সানি সেখানে চলে আসেন। কোনও অবস্থাতেই রাধিকা সেই সারপ্রাইজ নষ্ট হতে দিতে চান না।

সেজন্য তিনি সিক্রেট নিরাপদ রাখতে শুধু কুইক সুইচ' ব্যবহার করেন!

‘কুইক সুইচ’-কে ধন্যবাদ, এখন কেউ তাঁর স্মার্টফোন কোনও ভয় ছাড়াই অন্যজনের হাতে দিতে পারেন সুন্দর ফোটো তোলার জন্য। অথবা এটা কোনও বন্ধুকে দিতে পারেন কোনেও ভিডিয়ো দেখতে, যা ইউটিউবে ভাইরাল হয়েছে। পাওয়ার কি-তে শুধু ডাবল ক্লিক করুন এবং ফোনের অ্যাপ – গ্যালারি, ব্রাউজার, হোয়াটসঅ্যাপ ও আরও অনেক কিছু চলে যাবে পাবলিক থেকে প্রাইভেট ক্ষেত্রে।

এছাড়া, এআই-পাওয়ার্ড ‘কনটেন্ট সাজেশন’ সুপারিশ করে সেই ইমেজগুলিকে, যা আপনি হয়তো প্রাইভেট রাখতে চান। সেট-আপ খুবই সহজ। আপনাকে শুধু নির্দিষ্ট মুখ অথবা ইমেজ বাছতে হবে এবং সেটাই একটা প্রাইভেট ফোল্ডারে চলে যাবে। ‘কনটেন্ট সাজেশন’ Samsung Knox দ্বারা সুরক্ষিত, যা একটি ডিফেন্স-গ্রেড সিকিউরিটি প্ল্যাটফর্ম। আপনার প্রাইভেসি এমন সুরক্ষিত, যা আগে কখনও হয়নি।

এইসঙ্গে আপনি নিশ্চয়ই এই দুটি ফোনের ফ্ল্যাগশিপ ক্যামেরা ফিচার হাতছাড়া করতে চাইবেন না। এটা দেখা যাক।

সিঙ্গল টেক

তালিকার সবচেয়ে ওপরে রয়েছে সিঙ্গল টেক। সিঙ্গল টেক সেইসব মুহূর্তে সাহায্য করে, যখন নিখুঁত ফ্রেম কী হওয়া উচিত, তা নিয়ে আপনি দোলাচলে থাকেন।

এই ফিচার ১০ রকমের ফোটো ও ভিডিয়ো (সাতটি ফোটো ও তিনটি ভিডিয়ো) ক্যাপচার করে। সিঙ্গল টেকের ফলাফল সঙ্গে সঙ্গে গ্যালারিতে দেখা যায়। সিঙ্গল টেক শ্রেষ্ঠ শট ও মুহূর্ত গ্রহণ করে এবং এগুলিকে একটি অ্যালবামে একসঙ্গে রাখে। ক্যামেরা সফটওয়্যার আপনা-আপনি একটি শর্ট মুভি, জিআইএফ অ্যানিমেশন, কিছু স্টাইলাইজড ইমেজ এবং আরও অনেককিছু গ্রহণ করে, সবই এআই-এর সাহায্যে।

এটি আপনার শ্রেষ্ঠ শট খোঁজা এবং তারপর সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে এটি শেয়ার করার কাজ একেবারে সহজ করে। শেয়ার করতে মাত্র একটি সিঙ্গল ক্লিক - এটা খুবই স্বচ্ছন্দ ও বাধাহীন।

নাইট হাইপারল্যাপ্স

পরেরটা হল নাইট হাইপারল্যাপ্স। সোশ্যাল মিডিয়া ফিডের দিকে তাকান। এতে কোনেও বিস্ময় নেই যে জেন জেড ও নতুন প্রজন্ম রোজই বেশি ছবি তোলে। সেটা কোনেও রেস্তোরাঁয় খাওয়া হোক অথবা পার্কের চারপাশে ঘোরাফেরা করা হোক, সময় আসে হাইপারল্যাপ্সের – যা একটি চলন্ত টাইম-ল্যাপ্স। Samsung-এর নাইট হাইপারল্যাপ্স ফিচারকে ধন্যবাদ, যে কেউ কম আলো থাকলেও সুন্দর ফোটো নিতে পারে। এটা হল উইন-উইন পরিস্থিতি।

এগুলেি ছাড়া আরও কয়েকটি ফ্ল্যাগশিপ ক্যামেরা ফিচার আছে। যেমন - কাস্টম ফিল্টার, কুইক ভিডিয়ো রেকর্ডিং, সুইচ ক্যামেরা হোয়াইল রেকর্ডিং (বর্তমানে Galaxy A51-এ), এআই গ্যালারি জুম এবং স্মার্ট সেলফি অ্যাঙ্গেল।

‘অল্ট জেড লাইফ’-এর স্বাদ নিন

সেসব দিন চলে গিয়েছে, যখন কেউ নিজের স্মার্টফোন অন্য কারোর হাতে দিতে উদ্বিগ্ন হতেন। এটা এখন বিঘ্নহীন, Samsung-কে ধন্যবাদ।

Galaxy A51 ও Galaxy A71 স্মার্টফোন সত্যিই গ্রাউন্ডব্রেকিং। একটি কোয়াড-ক্যামেরা সেট-আপ আছে যা দিয়ে শুট করার মজাই আলাদা এবং উন্নততর ভিউয়িং অ্যাঙ্গেল-সহ একটি ডিসপ্লে। আর সবার উর্ধ্বে আছে, একটা ব্যাটারি যা গোটা একটা দিন থাকে। এর বেশি কেউ কী চাইতে পারে?

এসব ফিচারের সঙ্গে Galaxy A51 ও Galaxy A71 স্মার্টফোন আপনাকে ‘অল্ট জেড লাইফ’ কাটাতে সাহায্য করে।

যদি এখনও আপনি তৈরি নন, তাহলে কিসের জন্য আপনি অপেক্ষা করছেন?

সতর্কীকরণ (ডিসক্লেমার) : এই তথ্যাদি প্রস্তুত করেছে ব্র্যান্ড সলিউশনস টিম। এই প্রবন্ধ লেখার কাজে HT Media-র কোনও সাংবাদিক নিযুক্ত ছিলেন না। এই প্রবন্ধে লেখা তথ্যের সত্যনিষ্ঠতা, প্রাসঙ্গিকতা, যথার্থতা, বৈধতা নিয়ে কোনও দাবি করে না HT Media।

বন্ধ করুন