করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভারতে মৃত্যু হল আরও একজনের। এর ফলে, ভারতের করোনার থাবায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল চার। এর আগে, করোনার জেরে দিল্লি, কর্নাটক ও মুম্বইয়ের তিন প্রবীণের মৃত্যু হয়েছিল।

আরও পড়ুন : করোনা সতর্কতায় নয়া ঘোষণা কেন্দ্রের! বাড়ি থেকে কাজ করতে পারবেন এই কর্মচারীরা

গত ৭ মার্চ জার্মানি থেকে ইতালি হয়ে দিল্লিতে ফিরেছিলেন ৭০ বছরের ওই বৃদ্ধ। সেদিনই দিল্লি বিমানবন্দর থেকে পঞ্জাবে নিজের বাড়ির দিকে রওনা দেন তিনি। বুধবার তাঁর নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপরই এদিন তাঁর মৃত্যু হয়। তিনি ডায়াবেটিস ও হাইপারটেনশনেও ভুগছিলেন।

করোনা থেকে কীভাবে সুরক্ষিত থাকবেন, দেখে নিন সেই তথ্য। (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
করোনা থেকে কীভাবে সুরক্ষিত থাকবেন, দেখে নিন সেই তথ্য। (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

উল্লেখ্য, গতরাত থেকেই পঞ্জাবে কার্যত তালাবন্দি হয়ে গিয়েছে। করোনার থাবা রুখতে প্রথম রাজ্য হিসেবে শুক্রবার মধ্যরাত থেকে গণ পরিবহন ব্যবস্থা স্থগিত করা হবে বলে জানিয়েছে অমরিন্দর সিংয়ের সরকার। একই জায়গায় বড় জমায়েতের উপর নিষেধাজ্ঞা চাপানো হয়েছে। জমায়েত করলেও তা ২০ জনের কম হতে হবে। বিয়ের অনুষ্ঠান, হোটেল, রেস্তোরাঁ, ব্যাঙ্কোয়েট, খাবার জায়গা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে সারা রাজ্যের হোম ডেলিভারি পরিষেবা ও ছোটো ছোটো খাবার দোকান খোলা রাখা যাবে। সেইসব দোকানের সামনে বসে অবশ্য খাওয়া যাবে না।

বন্ধ করুন