বাড়ি > হাতে গরম > Fact Check: 'হাততালি দিলেই মরবে করোনা', হোয়্যাটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়া মেসেজের সত্যতা জানুন
থালা বাজিয়ে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছে দুই খুদে (ছবি সৌজন্য এপি)
থালা বাজিয়ে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছে দুই খুদে (ছবি সৌজন্য এপি)

Fact Check: 'হাততালি দিলেই মরবে করোনা', হোয়্যাটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়া মেসেজের সত্যতা জানুন

  • গত বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণে 'জনতা কার্ফু'-র বিকেলে হাততালি দেওয়া, কাঁসর-ঘণ্টা-থালা বাজানোর আর্জি জানিয়েছিলেন মোদী।

আর্জি জানিয়েছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেইমতো 'জনতা কার্ফু'-র বিকেলে নিশ্চয়ই হাততালি দিয়েছেন! তাতে কিন্তু করোনাভাইরাস মরবে না। অত্যন্ত এমনটাই বলছে কেন্দ্রের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো (পিআইবি)।

আরও পড়ুন : Janata Curfew: ধর্মতলা-সায়েন্স সিটি-সেক্টর ফাইভ, 'জনতা কার্ফু'-তে স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া কলকাতার

গত বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে ভাষণে 'জনতা কার্ফু'-র বিকেলে হাততালি দেওয়া, কাঁসর-ঘণ্টা-থালা বাজানোর আর্জি জানিয়েছিলেন মোদী। তারপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়া ও হোয়্যাটসঅ্যাপে একটি মেসেজ ছড়িয়ে পড়ে। তাতে দাবি করা হয়, 'জনতা কার্ফু'-র দিন হাততালি দিলে যে কম্পন তৈরি হবে, তার ফলে করোনার বিনাশ হবে। কেউ কেউ তা আবার বিশ্বাসও করেছেন। কিন্তু পিআইবির তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, এই দাবির কোনও সারবত্তা নেই।

আরও পড়ুন : জরুরি পরিষেবায় নিযুক্ত সকলকে হাততালি দিয়ে কুর্নিশ জানালেন দেব-শুভশ্রীরা

রবিবার পিআইবির তথ্য যাচাইকারী টুইটার হ্যান্ডেল @PIBFactCheck থেকে বলা হয়, 'না! সবাই একসঙ্গে হাততালি দিলে করোনাভাইরাস ধ্বংস হবে না। যাঁরা করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় নিঃস্বার্থভাবে জরুরি পরিষেবার কাজ করছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতাস্বরূপ বিকেল পাঁচটার সময় জনতা কার্ফুর হাততালির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।'

বন্ধ করুন