উত্তর-পশ্চিম দিল্লির কিরারিতে কাপড়ের গোডাউনে আগুন। রাত সাড়ে বারোটা নাগাদ আগুন লেগেছিল। টের পেয়ে স্থানীয়রা দমকলকে খবর দেয়। কিন্তু শীতের রাতে ঘুমন্ত অনেক মানুষকে রক্ষা করা যায়নি।

এখনও পর্যন্ত নয় জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। গুরুতর আহতে হয় হাসপাতালে ভর্তি তিন। আগুন এখন নিভিয়ে ফেলা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ ও দমকলের বিশাল বাহিনী উপস্থিত। আহত সঞ্জয় গান্ধী মেমোরিয়াল হাসপাতাল ও অন্যত্র ভর্তি করা হয়েছে। এই মাসের শুরুতেই দিল্লির আনাজ মান্ডিতে আগুন লেগেছিল, যাতে মারা গিয়েছিলেন ৪৩ জন।

কিরারিতে তিন তলা বাড়িতে আগুন নেভাতে সাতটি দমকলের ইঞ্জিন লেগেছে। দমকল অফিসারদের দাবি যে প্রাথমিক ভাবে একতলায় আগুন লাগে যেটি কাপড়ে গোডাউন ছিল। এটি ছোটোখাটো কারখানা হিসাবেও ব্যবহৃত হত কিনা, সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

দমকলকর্মীরা যখন পৌঁছান, তিনটি জ্বলে যাওয়া দেহ উদ্ধার করেন তাঁরা। নজনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে পাঠানো হয়। এখনও পর্যন্ত নজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

দুইতলার সিঁড়িতে এলপিজি সিলিন্ডার ছিল। একতলায় আগুন লাগার পর তার জেরে এলপিজি সিলিন্ডারটি ফেটে যায়। এতেই আগুনের তেজ বেড়ে যায় বলে দমকলকর্মীদের অনুমান। বাড়িটির অগ্নিনির্বাপক কোনও ব্যবস্থা ছিল না বলেই জানিয়েছেন তাঁরা। একটি মাত্র সিঁড়ি থাকায় সেখানে আগুন ধরে যাওয়ার বাড়ির নিবাসীরা বেরোনোর সুযোগ পাননি।


বন্ধ করুন