ছবিটি প্রতীকী।
ছবিটি প্রতীকী।

গাজোলে ঝাড়ফুঁকে মৃত্যু ৪ শিশুর, তদন্তে নামল পুলিশ

লাগাতার দুই ঘণ্টা ধরে চার শিশুকে ঝাড়ফুঁক করে সেই ওঝা। এক সময় আর সহ্য করতে না পেরে নেতিয়ে পড়ে অবসন্ন শিশুরা।

সমাজে কুসসংস্কার যে এখনও কতটা বিষ ছড়াচ্ছে, তার সাক্ষী থাকল মালদার গাজোল। সেখানে ওঝার নিদান মানতে গিয়ে মৃত্যু হল দুই শিশুর।

শুক্রবার গাজোলের কদমতলি গ্রামে খেলার মাঠ থেকে বাড়ি ফেরার পরে আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়ে চারটি শিশু। অসুস্থ শিশুদের চিকিত্সাকেন্দ্রে না নিয়ে গিয়ে স্থানীয় ওঝাকে ডেকে ঝাড়ফুঁক করানোর সিদ্ধান্ত নেয় তাদের পরিবার।

গতকাল বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে জঙ্গলের মধ্যে ওই চার শিশু খেলতে গিয়েছিল। সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে তারা জ্ঞান হারায়। চার জনেরই মুখ থেকে গ্যাঁজলা বেরোতে থাক। এই দেখে বাড়ির লোকের ধারণা হয় যে, ওই শিশুদের উপরে ভূতে ভর করেছে। তাই ওঝা ডেকে এনে ঝাড়ফুঁক শুরু করা হয়।

জানা গিয়েছে, লাগাতার দুই ঘণ্টা ধরে চার শিশুকে ঝাড়ফুঁক করে সেই ওঝা। এক সময় আর সহ্য করতে না পেরে নেতিয়ে পড়ে অবসন্ন শিশুরা।

উপায় না দেখে শেষে মালদা মেডিক্যাল কলেজে তাদের নিয়ে যান পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু হাসপাতালে যাওয়ার পথেই মারা যায় দু’টি শিশু।

অন্য দুই শিশুকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। তাদের শারীরিক পরিস্থিতি উদ্বেগজনক বলে জানিয়েছেন চিকিত্সকরা।

শিশুদের দেরিতে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ফলেই বিপদ ঘনায়, দাবি করেছেন স্থানীয় বিধায়ক। ঘটনায় একাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার অনুসন্ধানে নেমেছে মালদা পুলিশ।

বন্ধ করুন