জোরকদমে চলছে ফাঁসির প্রস্তুতি (ছবি সৌজন্য লাইভ হিন্দুস্তান)
জোরকদমে চলছে ফাঁসির প্রস্তুতি (ছবি সৌজন্য লাইভ হিন্দুস্তান)

শেষ ইচ্ছা কী? উত্তর দিল না নির্ভয়াকাণ্ডের দোষীরা

তিহাড়ের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা জানান, গত সপ্তাহেই লিখিতভাবে শেষ ইচ্ছা জানতে চাওয়া হয়েছিল।

জোরকদমে চলছে ফাঁসির প্রস্তুতি। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসির আগে শেষ ইচ্ছা জানতে চেয়েছে তিহাড় জেল কর্তৃপক্ষ। তবে এখনও উত্তর দেয়নি নির্ভয়াকাণ্ডের চার দোষী।

আরও পড়ুন : 'ইন্দিরা জয়সিংয়ের মতো লোকের জন্য ধর্ষণ হয়', কড়া জবাব নির্ভয়ার মা

তিহাড়ের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা জানান, গত সপ্তাহেই লিখিতভাবে শেষ ইচ্ছা চাওয়া হয়েছিল। এ নিয়ে অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর জেনারেল রাজকুমার বলেন, 'আমরা জবাবের অপেক্ষায় রয়েছি। ওরা কেউ প্রত্যুত্তর দেয়নি।'

আর পড়ুন : 'মেয়ের মৃত্যু নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে', কাঁদতে কাঁদতে বললেন নির্ভয়ার মা

তবে ইচ্ছাপ্রকাশ করলে যে পূরণ হবেই, এমন কোনও নিশ্চয়তা নেই। অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর জেনারেল জানান, দোষীরা নিজেদের নিজেদের শেষ ইচ্ছা কী জানানোর পর তা পূরণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে জেল কর্তৃপক্ষ। তিনি বলেন, 'প্রতিটি ইচ্ছা যে পূরণ হবে, তা নয়। লিখিতভাবে জবাব দেওয়ার পরই প্রশাসন এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।'

আরও পড়ুন : নির্ভয়া-দোষীদের ফাঁসির ড্রেস রিহার্সাল হল তিহাড়ে

ফাঁসির আগে শেষবারের মতো কারোর সঙ্গে দেখা করতে চাইলে বা তাদের কোনও সম্পত্তি বা জিনিসপত্র কাউকে স্থানান্তরিত করার হলে তা জানানোর কথাও বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন :নির্ভয়া কাণ্ডের সাত বছর- ফাঁসুড়ে হতে চেয়ে বিদেশ থেকে চিঠি তিহাড়ে

যদিও কোনও বিষয় নিয়েই উত্তর দেয়নি দোষীরা। তা থেকেই একটি মহলের সংশয় ফাঁসির তারিখ পিছিয়ে দেওয়ার জন্য আবারও কি নতুন ‘ছক’ কষছে চারজন? আর সেজন্যই কি ইচ্ছা করেই উত্তর দিচ্ছে না তারা? এই প্রশ্নটাই আপাতত ঘুরপাক খাচ্ছে।

আরও পড়ুন :কঙ্গনার তোপের মুখে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিং, বললেন 'এঁরাই ধর্ষকদের জন্ম দেয়' : ও ন

বন্ধ করুন