বাড়ি > হাতে গরম > বিকল ইন্ডিগোর বিমান, ৮ ঘণ্টা এরোব্রিজে আটকে শতাধিক যাত্রী
প্রতীকী ছবি।
প্রতীকী ছবি।

বিকল ইন্ডিগোর বিমান, ৮ ঘণ্টা এরোব্রিজে আটকে শতাধিক যাত্রী

  • ইন্ডিগো সংস্থার এয়ারবাস এও৩২০নিও-তে যান্ত্রিক ত্রুটি ধরা পড়ে। ফলে রাত ৯.১৫ মিনিটে লখনউ বিমানবন্দর থেকে রওনা দিতে পারেনি ফ্লাইট। পরের দিন সকাল ৬টায় সেই ছাড়ে এবং সকাল ৮.১৯ মিনিটে হায়দরাবাদ পৌঁছয়।

যান্ত্রিক ত্রুটির জেরে সারারাত এরোব্রিজের উপরেই কাটাতে হল শতাধিক বিমানযাত্রীকে। তাঁদের জন্য বিকল্প বিমান সরবরাহ করতে ব্যর্থ হল ইন্ডিগো।

বৃহস্পতিবার রাতে লখনউ থেকে হায়দরাবাদ যাওয়ার জন্য নির্দিষ্ট ইন্ডিগো সংস্থার এয়ারবাস এও৩২০নিও-তে যান্ত্রিক ত্রুটি ধরা পড়ে। ফলে নির্ধারিত সময় রাত ৯.১৫ মিনিটে লখনউ বিমানবন্দর থেকে রওনা দিতে পারেনি ৬ই ২৭৮ ফ্লাইট। শেষ পর্যন্ত ৮ ঘণ্টা দেরিতে শুক্রবার সকাল ৬টায় সেই বিমান লখনউ ছাড়ে এবং সকাল ৮.১৯ মিনিটে হায়দরাবাদ পৌঁছয়।

এদিকে দীর্ঘ ৮ ঘণ্টা বিমানে ওঠার এরোব্রিজে আটকে পড়েন ইন্ডিগো উড়ানটির একশোর বেশি যাত্রী। তাঁদের মধ্যে প্রবীণ এবং হুইলচেয়ার ব্যবহারকারী বেশ কয়েক জন ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। তাঁদের সুবিধার জন্য বিকল্প বিমানের ব্যবস্থা করতে পারেনি উড়ান সংস্থা। এই বিষয়ে ইন্ডিগোর তরফ থেকে কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

এই নিয়ে বেশ কয়েক বার নিও এয়ারবাসের প্র্যাট অ্যান্ড হুইটনি (পি অ্যান্ড ডব্লিউ) ইঞ্জিনে সমস্যা দেখা দিল। এর আগে ইন্ডিগো-কে এই ইঞ্জিন পালটে লো প্রেশার টারবাইন (এলপিটি) যুক্ত ইঞ্জিন বসানোর নির্দেশ দিয়েছিল উড়ান নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিজিসিএ। একই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল গো এয়ার সংস্থাকেও।

ডিজিসিএ-এর নির্দেশ পেয়ে নিজেদের ১৩টি বিমানের পুরনো পি অ্যান্ড ডব্লিউ ইঞ্জিন বদলেছে গো এয়ার। কিন্তু এখনও পর্যন্ত নির্দেশ পালনে ব্যর্থ ইন্ডিগো। আগামী ৩১ জানুয়ারির মধ্যে ইন্ডিগোর ৯০টির বেশি বিমানের ইঞ্জিন পালটাতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছে ডিজিসিএ।

বন্ধ করুন