শুক্রবার কিশতওয়ারে সংঘর্ষের আগে প্রস্তুত হচ্ছে নিরাপত্তাবাহিনী। ঘটনায় ২ হিজবুল মুজাহিদিন সন্ত্রাসবাদী খতম হয়েছে। ছবি: এএনআই।
শুক্রবার কিশতওয়ারে সংঘর্ষের আগে প্রস্তুত হচ্ছে নিরাপত্তাবাহিনী। ঘটনায় ২ হিজবুল মুজাহিদিন সন্ত্রাসবাদী খতম হয়েছে। ছবি: এএনআই।

শোপিয়ানের সংঘর্ষে খতম কিশ্‌তওয়ারে এসপিও-র ২ খুনি-সহ ৪ হিজবুল সন্ত্রাসবাদী

শুক্রবার সংঘর্ষের জেরে এসপি-র হত্যাকারী দুই সন্ত্রাসবাদী মারা গিয়েছে বলে জানিয়েছে জম্মু ও কাশ্মীর প্রশাসন। নিহত হয়েছে আরও ২ হিজবুল মুজাহিদিন সন্ত্রাসবাদী।

জম্মু ও কাশ্মীরের শোপিয়ান জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে খতম হল দুই সন্ত্রাসবাদী। শুক্রবার এই তথ্য জানিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত থেকে শোপিয়ান জেলার দাইরু অঞ্চলে বিস্তৃত এলাকা ঘিরে তল্লাশি অভিযান শুরু করে সিআরপিএফ ও ৪৪ রাষ্ট্রীয় রাইফেলস-এর যৌথ বাহিনী। তল্লাশি চলার সময় আচমকা গুলি চালায় আত্মগোপনকারী সন্ত্রাসবাদীরা। জবাবে পালটা গুলি করতে শুরু করে বাহিনীও।

শুক্রবার সকালে সংঘর্ষের জেরে দুই সন্ত্রাসবাদী মারা গিয়েছে বলে জানিয়েছে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ। নিহতরা হিজমবল মুজাহিদিন সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীর সদস্য বলে জানা গিয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে ৪টি আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি।

এদিনই সকালে কিশতওয়ারের দাচান এলাকায় নিরাপত্তাবাহিনীর গুলিতে মারা যায় দুই জঙ্গি। পুলিশের দাবি, গত ১৩ এপ্রিল কিশতওয়ারে দুই এসপিও-কে কুড়ুল নিয়ে আক্রমণ করেছিল এই দুই হিজবুল মুজাহিদিন সন্ত্রাসবাদী। ঘটনাস্থলে মারা যান এক অফিসার, তাঁর সঙ্গীকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

কিশতওয়ারে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত দুই হিজবুল মুজাহিদিন সন্ত্রাসবাদী।
কিশতওয়ারে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত দুই হিজবুল মুজাহিদিন সন্ত্রাসবাদী।

এ দিনের সংঘর্ষে নিহত দুই সন্ত্রাসবাদীর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে কিশতওয়ারে আক্রান্ত দুই এসপিও-র আগ্নেয়াস্ত্র।

পুলিশ ইনস্পেক্টর জেনারেল মুকেশ সিং জানিয়েছেন, টানা তিনদিন তল্লাশি চালানোর পরে সৌন্দর গ্রামের পিছনে এক নালায় আত্মগোপনকারী দুই সন্ত্রাসবাদীর সন্ধান পায় নিরাপত্তাবাহিনী। তাদের গোপন ডেরার দিকে এগোতেই গুলি চালাতে শুরু করে সন্ত্রাসবাদীরা। নিরাপত্তাবাহিনী পালটা গুলি চালালে শেষ পর্যন্ত দুই সন্ত্রাসবাদীই খতম হয়। নিহতদের থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একটি একে-৪৭ ও একটি অনস্যাস রাইফেল।

আইজি-র দাবি, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে যথাসময়ে পদক্ষেপ করার ফলে গত কয়েক মাস ধরে দাচান ও মারওয়াহ এলাকায় সন্ত্রাসবাদীরা যে ফের নাশকতার ছক সাজাচ্ছিল, তা সমূলে উৎপাটন করা গিয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, এ দিনের অভিযানের সাফল্য শহিদ এসপিও বসিত ইকবালের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য হিসেবে নিবেদন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণ রুখতে দেশজুড়ে জারি করা লকডাউনের মধ্যে উপত্যকায় একাধিক সন্ত্রাসবাদী হামলা দেখা দিয়েছে। চলতি মাসে একাধিক সংঘর্ষে বেশ কিছু সন্ত্রাসবাদীকে খতম করা হয়েছে।

এপ্রিল মাসের গোড়ায় সোপোরে পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয় ২০১৮ সাল থেকে সক্রিয় জইশ-ই-মহম্মদ গোষ্ঠীর ২৩ বছর বয়েসি এক কম্যান্ডারের।

বন্ধ করুন