বাংলা নিউজ > হাতে গরম > মেট্রোয় ঝাঁপ যুবকের, একই দিনে মেয়েকে নিয়ে আত্মঘাতী স্ত্রী
ছবিটি প্রতীকী।
ছবিটি প্রতীকী।

মেট্রোয় ঝাঁপ যুবকের, একই দিনে মেয়েকে নিয়ে আত্মঘাতী স্ত্রী

  • দিল্লির জওহরলাল নেহরু মেট্রো স্টেশনে চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপিয়ে পড়ে মারা যান যুবক।কয়েক ঘণ্টা পরে শিশুকন্যাকে নিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হলেন তাঁর স্ত্রী।

মেট্রোরেলে ঝাঁপ দিয়ে স্বামী আত্মঘাতী হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরে শিশুকন্যাকে নিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হলেন নয়ডার গৃহবধূ।

নয়ডা ১-এর সার্কেল অফিসার শ্বেতাভ পান্ডে জানিয়েছেন, চার মাস আগে নয়ডার সেক্টর ১২৮-এর এক ফ্ল্যাটবাড়িতে বসবাস শুরু করেন আদতে তামিলনাডুর নলাম্বুরের বাসিন্দা ওই দম্পতি। তাঁদের বছর পাঁচেকের একটি মেয়ে ছিল।

গত ১৩ নভেম্বর সকাল ১১.৩০ নাগাদ দিল্লির জওহরলাল নেহরু মেট্রো স্টেশনে চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপিয়ে পড়েন পরিবারের কর্তা বছর তেত্রিশের যুবক। দুর্ঘটনার পরে নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁর প্রাণ বাঁচানোর চেষ্টা করলেও কিছু ক্ষণের মধ্যেই যুবকের মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর দেহ পাঠানো হয় দিল্লির রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালে।

নয়ডার ওই ফ্ল্যাটেই বাস করেন নিহত যুবকের ভাই, যিনি দিল্লিতে বিমানচালনার প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। স্বামীর মৃত্যুর খবর পেয়ে হাসপাতালে এসে পৌঁছন নিহতের স্ত্রী, মেয়ে ও ভাই। তাঁরা দুজনেই ঘটনায় শোকে ভেঙে পড়েন।

এরপর বাড়ি পিরে গিয়ে প্রথমে মেয়েকে সিলিং ফ্যান থেকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে দিয়ে পরে নিজেও একই ভাবে আত্মঘাতী হন ওই গৃহবধূ। ঘটনাস্থল থেকে কোনও সুইসাইড নোট পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বন্ধ করুন