শিলচর কেন্দ্রীয় কারাগার।
শিলচর কেন্দ্রীয় কারাগার।

মানবিক আদালত, জামিন পেলেন অসমের ডিটেনশন সেন্টারে ঠাঁই পাওয়া প্রৌঢ়

  • শুনানিতে হাজিরা না দেওয়ায় ২০১৮ সালের অগস্ট মাসে করিমগঞ্জ জেলার বদরপুরের বাসিন্দা জয়দেব ঘোষকে ‘বিদেশি’ ঘোষণা করে ফরেনার্স ট্রাইব্যুনাল।

ফরেনার্স ট্রাইব্যুনালের নির্দেশ খারিজ করে অসমের ডিটেনশন সেন্টারে বন্দি এক ব্যক্তির জামিন মঞ্জুর করল লগুয়াহাটি হাই কোর্ট। সেই সঙ্গে ওই ব্যক্তির জন্য নতুন শুনানির ব্যবস্থা করতেও ট্রাইব্যুনালকে নির্দেশ দিল আদালত।

গত বৃহস্পতিবার কাছাড় জেলার শিলচর সেন্ট্রাল জেলের ডিটেনশন ক্যাম্প থেকে জামিনে মুক্তি পান জয়দেব ঘোষ (৫০)। পেশায় দোকানকর্মী জয়দেব জানিয়েছেন, রক্তের ্যান্সারে আক্রান্ত ছেলেকে বাঁচানোর লড়াইয়ে ব্যস্ত থাকায় তিনি আগে তলব করা সত্ত্বেও শুনানিতে হাজির হতে পারেননি।

২০১৮ সালের অগস্ট মাসে করিমগঞ্জ জেলার বদরপুরের বাসিন্দা জয়দেব ঘোষকে ‘বিদেশি’ ঘোষণা করে ফরেনার্স ট্রাইব্যুনাল। তাঁর বয়ান নথিভুক্ত সকরার জন্য ডাক পাঠালেও তিনি শুনানিতে হাজির হতে ব্যর্থ হওয়ায় এই ঘোষণা করা হয়।

জয়দেবের দাবি, তাঁর একমাত্র ছেলে বছর সতেরোর কিশোর রক্তের ক্যান্সারে আক্রান্ত হলে তার জীবনরক্ষা প্রাণপাত চেষ্টা চলে। তাই নিয়ে ব্যস্ত থাকার দরুণ তিনি শুনানিতে হাজিরা দিতে পারেননি।

২০১৬ সালে তাঁর বিরুদ্ধে অনুপ্রবেশের অভিযোগ আনে অসম সীমান্ত পুলিশ। এরপর ট্রাইব্যুনালে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা উঠলে তা করিমগঞ্জের আদালতে রেফার করা হয়।

২০১৭ সালের ২৪ অগস্ট প্রথম শুনানিতে উপস্থিত থাকেন জয়দেব। কিন্তু তার পরে ছেলের চিকিৎসার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ায় তিনি আর যেতে পারেননি। ২০১৯ সালে তাঁকে গ্রেফতার করার লপরে শিলচর সেন্ট্রাল জেলে পাঠানো হয়।

বন্ধ করুন