সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব বিধি পালন করতে পেট্রল পাম্পে বিভাজন রেখা টেনে দেওয়া হয়েছে। লখনউয়ে এএনআই-এর ছবি।
সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব বিধি পালন করতে পেট্রল পাম্পে বিভাজন রেখা টেনে দেওয়া হয়েছে। লখনউয়ে এএনআই-এর ছবি।

মাস্ক না পরলে মিলবে না জ্বালানি, সিদ্ধান্ত পেট্রল পাম্প মালিকদের

  • মাস্ক না পরলে কোনও গ্রাহককে জ্বালানি বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

করোনা সংক্রমণে পেট্রোল পাম্প কর্মীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে এবার মাস্ক ছাড়া জ্বালানি না বিক্রি করার নীতি চালু করল অল ইন্ডিয়া পেট্রোলিয়াম ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশন।

সোমবার সংবাদসংস্থা এএনআই-কে সংগঠনের সভাপতি অজয় বনসল জানিয়েছেন, এই বিষয়ে রবিবার সারা ভারতে এই সিদ্ধান্ত উদ্যোগ নিয়েছে অ্যাসোসিয়েশন।

তিনি বলেন, ‘পেট্রোল পাম্প বছরের ৩৬৫ দিনই খোলা থাকে। সরকারি নির্দেশে অত্যাবশকীয় পণ্যের তালিকায় থাকার কারণে আমাদের কর্মীদের সব সময় গ্রাহকদের সংস্পর্শে থাকতে হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে মাস্ক না পরলে কোনও গ্রাহককে জ্বালানি বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

তাঁর দাবি, এর ফলে গ্রাহক ও পাম্পকর্মীরা মাস্ক ব্যবহার করতে বাধ্য হবেন। সংগঠনের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন অধিকাংশ গ্রাহকই।

উল্লেখ্য, এর আগে টু হুইলার চালকদের নিরাপত্তার স্বার্থে হেলমেট ছাড়া পেট্রল বিক্রির উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য প্রশাসন।

পাশাপাশি বনসল জানিয়েছেন, লকডাউনের ফলে দেশজুড়ে জ্বালানির বিক্রি ৯০% কমেছে। বড়সড় ক্ষতি হয়েছে পাম্প ব্যবসায়ীদের।

বন্ধ করুন