পবন কুমার গুপ্ত (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
পবন কুমার গুপ্ত (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

'জেলে পুলিশ মেরেছে', FIR দায়েরের আর্জি জানিয়ে আদালতে নির্ভয়ার দণ্ডিত

  • ওয়াকিবহল মহলের মতে, ফাঁসি পিছনোর জন্য নিত্য নতুন ছক কষছে নির্ভয়াকাণ্ডের দণ্ডিতরা।

আর কোনও আইনি পথ খোলা নেই। চতুর্থবার জারি হয়েছে মৃত্যু পরোয়ানা। তারপরও নানা অছিলায় ফাঁসি পিছনোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে নির্ভয়া কাণ্ডের দণ্ডিতরা।

আরও পড়ুন : ভুল বুঝিয়েছিলেন আইনজীবী, ষড়যন্ত্রের শিকার, আদালতে নতুন ছল নির্ভয়ার দোষীর

গত সপ্তাহে এক দোষী মুকেশ সিং সুপ্রিম কোর্টে আবেদন দাখিল করে জানায়, পুরো বিচারপ্রক্রিয়ায় তাকে বিপথে চালিত করেছে তার আইনজীবী। সেজন্য সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানায় সে। সেই আর্জির ঠিক পাঁচদিনের মাথায় একই কায়দায় আদালতের দ্বারস্থ হল অপর দণ্ডিত পবন কুমার গুপ্ত।

আরও পড়ুন : আমাদের পুরো সিস্টেম দোষীদের সমর্থন করে, ফাঁসি পিছোনোর পর ক্ষোভ নির্ভয়ার মা'রা

তার অভিযোগ, দিল্লির মান্ডোলি জেলে থাকার সময় দুই পুলিশকর্মী তাকে মারধর করেছিল। তার মাথায় গুরুতর আঘাত লাগে। সেজন্য ওই দুই পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের আর্জি জানিয়েছে পবন। সেই আর্জির সাপেক্ষে জেল কর্তৃপক্ষের জবাব চেয়েছে দিল্লির একটি আদালত। বৃহস্পতিবারের জন্য বিষয়টি নথিভুক্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : 'সরকারকে দণ্ডিতদের ফাঁসি দিতে হবে', কেঁদে ফেললেন নির্ভয়ার মা

যদিও ওয়াকিবহল মহলের মতে, ফাঁসি পিছনোর জন্য নিত্য নতুন ছক কষছে নির্ভয়াকাণ্ডের দণ্ডিতরা। দিল্লি হাইকোর্টে সময়সীমা বেঁধে দেওয়ার পরও আদালতে আবেদন জানিয়েছে। পিছিয়েছে ফাঁসি। এবার আগামী ২০ মার্চ সকাল সাড়ে পাঁচটায় ফাঁসি কার্যকর যাতে না হয়, সেজন্য আবারও আদালতে দ্বারস্থ হয়েছে পবন।

আরও পড়ুন : 'ফাঁসির পর সবথেকে বড় জয় হবে', দণ্ডিতদের বিরুদ্ধে মৃত্যু পরোয়ানা জারির পর বললেন নির্ভয়ার মা

উল্লেখ্য, প্রাথমিকভাবে দিল্লির মান্ডোলি জেলে পবনকে রাখা হয়েছিল। গত ডিসেম্বরে তাকে তিহাড় জেলে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল।

বন্ধ করুন