মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে COVID India Seva চালু করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।ছবি: এএনআই।
মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে COVID India Seva চালু করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।ছবি: এএনআই।

করোনা মোকাবিলায় জনস্বার্থে টুইটারে COVID India Seva চালু করল স্বাস্থ্য মন্ত্রক

  • সংক্রমণ সংক্রান্ত দেশবাসীর যাবতীয় প্রশ্নের দ্রুত উত্তর দেওয়া এবং সমস্যার সমাধান জোগানোয় মঙ্গলবার থেকে জনস্বার্থে চালু হয়েছে COVID India Seva প্ল্যাটফর্ম। 

দেশবাসীকে করোনা সংক্রমণ সংক্রান্ত তথ্য দিতে ও সমস্যার সমাধানের জন্য টুইটারে ইন্টারঅ্যাক্টিভ প্ল্যাটফর্ম COVID India Seva চালু করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।

দেশজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে ইন্টারনেটকে কাজে লাগিয়ে প্রশাসনিক পরিষেবা দিতে উদ্যোগী হলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সংক্রমণ সংক্রান্ত দেশবাসীর যাবতীয় প্রশ্নের দ্রুত উত্তর দেওয়া এবং সমস্যার সমাধান জোগানোয় মঙ্গলবার থেকে জনস্বার্থে চালু হয়েছে COVID India Seva প্ল্যাটফর্ম।  

জানা গিয়েছে, এই পরিষেবাকে ২৪ ঘণ্টা সক্রিয় ও কার্যকরী করার দায়িত্বে রয়েছেন নিয়োগ করা হয়েছে তথ্য প্রযুক্তি, স্বাস্থ্য-সহ বিভিন্ন বিষয়ের বিশেষজ্ঞদের। 

এক বিবৃতির মাধ্য হর্ষ বর্ধন জানিয়েছেন, ‘জনস্বাস্থ্য সম্পর্কে নাগরিকদের দ্রুত জবাব ও সমাধানের মাধ্যমে প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষার কাজ করবেন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বিশেষজ্ঞেরা।’

এই বিশেষ টুইটার অ্যাকাউন্টে যোগাযোগ করতে পারবেন ভারতের সমস্ত নাগরিক, জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। জানা যাবে করোনা সংক্রমণ সম্পর্কে সাম্প্রতিক তথ্য, সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারি পদক্ষেপ, স্বাস্থ্য পরিষেবা পাওয়ার উপায় এবং উপসর্গ দেখা দেওয়া রোগীর চিকিৎসা সম্পর্কে বিস্তারিত নিয়মাবলী।   

দেশবাসীকে করোনা সংক্রমণ সংক্রান্ত তথ্য দিতে ও সমস্যার সমাধানের জন্য টুইটারে ইন্টারঅ্যাক্টিভ প্ল্যাটফর্ম COVID India Seva চালু করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।

দেশজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে ইন্টারনেটকে কাজে লাগিয়ে প্রশাসনিক পরিষেবা দিতে উদ্যোগী হলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সংক্রমণ সংক্রান্ত দেশবাসীর যাবতীয় প্রশ্নের দ্রুত উত্তর দেওয়া এবং সমস্যার সমাধান জোগানোয় মঙ্গলবার থেকে জনস্বার্থে চালু হয়েছে COVID India Seva প্ল্যাটফর্ম।  

জানা গিয়েছে, এই পরিষেবাকে ২৪ ঘণ্টা সক্রিয় ও কার্যকরী করার দায়িত্বে রয়েছেন নিয়োগ করা হয়েছে তথ্য প্রযুক্তি, স্বাস্থ্য-সহ বিভিন্ন বিষয়ের বিশেষজ্ঞদের। 

এক বিবৃতির মাধ্য হর্ষ বর্ধন জানিয়েছেন, ‘জনস্বাস্থ্য সম্পর্কে নাগরিকদের দ্রুত জবাব ও সমাধানের মাধ্যমে প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষার কাজ করবেন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বিশেষজ্ঞেরা।’

এই বিশেষ টুইটার অ্যাকাউন্টে যোগাযোগ করতে পারবেন ভারতের সমস্ত নাগরিক, জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। জানা যাবে করোনা সংক্রমণ সম্পর্কে সাম্প্রতিক তথ্য, সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারি পদক্ষেপ, স্বাস্থ্য পরিষেবা পাওয়ার উপায় এবং উপসর্গ দেখা দেওয়া রোগীর চিকিৎসা সম্পর্কে বিস্তারিত নিয়মাবলী। 

 

 

বন্ধ করুন