তিস হাজারি আদালতকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে আবেদন কুলদীপ সেঙ্গারের।
তিস হাজারি আদালতকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে আবেদন কুলদীপ সেঙ্গারের।

উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে সেঙ্গার

  • যাবজ্জীবন কারাদণ্ডকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন জানালেন উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে দণ্ডিত বহিষ্কৃত বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গার।

বিচারের রায় ও তারে জেরে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন জানালেন উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে দণ্ডিত বহিষ্কৃত বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গার।

এর আগে উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে সেঙ্গারকে দোষী সাব্যস্ত করে গত ২০ ডিসেম্বর তাঁর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ঘোষণা করে দিল্লির নিম্ন আদালত। বিচারে সেঙ্গারের সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়ে সিবিআইয়ের কৌঁসুলি বলেন, এই মামলা সংগঠিত অপরাধের বিরুদ্ধে এক ব্যক্তিগত লড়াই। আদালতে প্রাক্তন বিধায়কের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পক্ষে তিনি সওয়াল করেন।

২০১৯ সালের ৯ অগস্ট উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে সেঙ্গারের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২০বি (অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র), ৩৬৩ (অপহরণ), ৩৬৬ (অপহরণ অথবা বিয়ের জন্য কোনও মহিলাকে বাধ্য করার চেষ্টা), ৩৭৬ (ধর্ষণ) এবং পকসো আইনের একাধিক ধারায় দিল্লির তিস হাজারি আদালতে মামলা দায়ের হয়।

উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে প্রধান অভিযুক্ত কুলদীপ সেঙ্গার ছাড়াও ওই মামলায় সহ-অভিযুক্ত হয় শশী সিং। তবে বিচারে শেষ পর্যন্ত রেহাই পান শশী। সেঙ্গারের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে এক নাবালিকাকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হয়।

বিচারে সেহ্গারের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হওয়ায় অবশ্য খুশি হননি নিগৃহীতার পরিবার। তাঁদের দাবি ছিল, প্রাক্তন বিধায়ককে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হোক।

বন্ধ করুন