বাংলা নিউজ > কর্মখালি > 12th Board exam: কীভাবে মূল্যায়ন? CBSE ও CISCE-কে ২ সপ্তাহ সময় সুপ্রিম কোর্টের
বাতিল হয়ে গিয়েছে সিবিএসই এবং সিআইএসসিই বোর্ড পরীক্ষা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
বাতিল হয়ে গিয়েছে সিবিএসই এবং সিআইএসসিই বোর্ড পরীক্ষা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

12th Board exam: কীভাবে মূল্যায়ন? CBSE ও CISCE-কে ২ সপ্তাহ সময় সুপ্রিম কোর্টের

  • বাতিল হয়ে গিয়েছে বোর্ড পরীক্ষা।

বাতিল হয়ে গিয়েছে দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা। এবার পড়ুয়াদের মূল্যায়নের জন্য উপযুক্ত মাপকাঠি তৈরি করতে সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (সিবিএসই) এবং দা ইন্ডিয়ান সার্টিফিকেট সেকেন্ডারি এডুকেশনকে (সিআইএসসিই) দু'সপ্তাহ সময় দিল সুপ্রিম কোর্ট।

পড়ুয়াদের স্বার্থে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সিবিএসই এবং সিআইএসসিই দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা বাতিল করে দেওয়ায় বৃহস্পতিবারের শুনানিতে সন্তোষ প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্ট। বিচারপতি এ এম খানউইলকর এবং বিচারপতি দীনেশ মাহেশ্বরীর ডিভিশন বেঞ্চের তরফে জানানো হয়েছে, কেন্দ্র উপযুক্ত মূল্যায়ন পদ্ধতি তৈরি না করা পর্যন্ত সেই মামলার শুনানি শেষ হবে না। বেঞ্চের তরফে বলা হয়, ‘পরীক্ষা বাতিলের জন্য একটি নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেনে আমরা খুশি। কিন্তু আমরা চাই যে মূল্যায়নের প্রক্রিয়া আমাদের জানানো হোক।

কেন্দ্রের তরফে অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে ভেনুগোপাল চার সপ্তাহ সময় দেওয়ার আর্জি জানান। একই আর্জি জানান সিআইএসসিইয়ের আইনজীবীও। যদিও বেঞ্চের তরফে জানানো হয়, উচ্চশিক্ষার প্রতিষ্ঠানে ভরতি হওয়া নিয়ে পড়ুয়ারা উদ্বেগে আছেন। শুধু দেশে নয়, অনেকেই বিদেশে ভরতি হবেন। তাই বিষয়টি জরুরি ভিত্তিতে মিটিয়ে নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা আছে।

একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের মূল্যায়নের পদ্ধতি নির্ধারণের জন্য সিবিএসই, সিআইএসসিই এবং কেন্দ্রকে নির্দেশ দেওয়ার আর্জি জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দাখিল করেন আইনজীবী মমতা শর্মা। ৭,০০০-এরও বেশি অভিভাবকের হয়ে সেই আবেদন করেন তিনি। বৃহস্পতিবার সেই মামলার শুনানিতেই বিভিন্ন রাজ্য বোর্ডের পড়ুয়াদের জন্যও একটি অভিন্ন নির্দেশের আর্জি জানান। তা নিয়ে বেঞ্চের তরফে বলা হয়, 'একটু ধৈর্য ধরুন। আগে এই বিষয়টি মিটে যাক, কারণ আমাদের কাছে সিবিএসই এবং সিআইএসসিইয়ের পরীক্ষার (মামলা) আছে।' 

বন্ধ করুন