বিদেশি ভাষা শিখে নানান ধরনের কাজ পাওয়া যেতে পারে।
বিদেশি ভাষা শিখে নানান ধরনের কাজ পাওয়া যেতে পারে।

লকডাউনে সময় কাটছে না? আগামী পেশার স্বার্থে শিখে ফেলুন বিদেশি ভাষা

  • বাড়িতে ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেই নতূন ভাষার জগতে পৌঁছে যাওয়া সম্ভব।

বিদেশি ভাষা জানা যেমন উচ্চ শিক্ষার মাপকাঠি, তেমনি একাধিক ভাষা জানা থাকলে কাজের পরিধি অনেক বেড়ে যায়। লকডাউনে বাড়ি বসেই শিখে ফেলা যায় এমন বেশ কিছু কোর্স।

করোনা থেকে দূরে থাকার দাওয়াই এখন লকডাউন। আর ২১ দিনের লকডাউনে ক্রমশ হাঁফিয়ে উঠছে সকলে। এই একঘেয়ে জীবন থেকে মুক্তি পেতে বাড়িতে বসে এমন কিছু শেখা যায় যা ভবিষ্যতে উপকারে লাগতে পারে, রোজগারের নতুন দিশা দেখাতে পারে।

ভাবছেন তো, এই বন্দিদশায় কী ভাবে শিখবেন বিদেশি ভাষা? চিন্তার কোন‌ও কারণ নেই। বাড়িতে ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেই নতূন ভাষার জগতে পৌঁছে যাওয়া সম্ভব। জেনে রাখুন, বিদেশি ভাষা শিখে কী কী ধরনের কাজ পাওয়া যেতে পারে।

বিভিন্ন দূতাবাস, হোটেল, পর্যটনশিল্পে ইন্টারপ্রেটার বা অনুবাদকের কাজ পাওয়া যায় বিদেশি ভাষর জ্ঞান থাকলে। পাশাপাশি, বিভিন্ন সফটওয়্যার কোম্পানিতে কমিউনিকেশন কনসালট্যান্ট হিসেবেও কাজ পাওয়া যায়।

এ ছাড়া কল সেন্টার, বিদেশি বিমান সংস্থায় কাজের সুযোগ রয়েছে। মিডিয়া অর্থাৎ রেডিও, টেলিভিশন, সংবাদপত্রে কাজের ক্ষেত্রেও বিদেশি ভাষা জানা আলাদা মাত্রা এনে দেয়। এ সব কিছুর পাশাপাশি, এই দক্ষতা অর্জন করতে পারলে শিক্ষকতার কাজ‌ও বেছে নেওয়া যায়।

যে কোনো বয়সেই ভাষা শেখা যায়। তবে পেশাদারি কারণে তালিম নিতে হলে উচ্চ মাধ্যমিক বা স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করার পরে প্রশিক্ষণ নেওয়াই ভালো।

বন্ধ করুন