যোগ নিয়ে পড়াশোনা খুলে দিতে পারে আন্তর্জাতিক সুযোগের দরজা।
যোগ নিয়ে পড়াশোনা খুলে দিতে পারে আন্তর্জাতিক সুযোগের দরজা।

বাড়ছে বিশ্বব্যাপী কদর, যোগবলই হয়ে উঠতে পারে সফল কেরিয়ারের চাবিকাঠি

নির্দ্বিধায় পেশা হিসেবে বেছে নেওয়া যায় যোগ ব্যায়ামকে।

যোগ বলে রোগ আরোগ্য। প্রাচীন ভারতে এই আপ্তবাক্যটিই মেনে চলা হত। করোনা হোক কিংবা কলেরা, যে কোনও অসুখের সঙ্গে যুঝতে হলে, রোগ প্রতিরোধ শক্তি বাড়াতে হলে নিয়মিত যোগাভ্যাস প্রয়োজন। সুস্থ সুন্দর জীবনের চাবিকাঠি এই আর্ট অফ লিভিং।

সংস্কৃত শব্দ যোগের অর্থ হল মেলবন্ধন। সঠিক ভাবেই শরীর ও মনের মেলবন্ধন ঘটায় যোগ। মন থেকে শরীরে বহু রোগ বাসা বাঁধে। মানসিক চাপ থেকে শরীরে জন্ম নেয় প্রেশার, বা সুগারের মতো নানান অসুখ। আর এই অসুখের অন্যতম দাওয়াই হল যোগাসন।

এই কারণেই বিভিন্ন দেশ যোগাসনে আগ্রহী হচ্ছে। চিকিৎসকরাও নিয়মিত যোগাভ্যাসের গুরুত্ব সম্পর্কে বলছেন। এই সমস্ত কারণে নির্দ্বিধায় পেশা হিসেবে বেছে নেওয়া যায় যোগ ব্যায়ামকে। একই কারণে বাড়ছে যোগ নিয়ে পাড়াশোনার প্রবণতা।

যোগ নিয়ে পড়তে চাইলে ডিগ্রি, ডিপ্লোমা এবং সার্টিফিকেট কোর্স করা যায়। স্নাতক স্তরে যোগ নিযে পড়তে হলে প্রার্থীকে যে কোনও শাখায় অবশ্যই উচ্চ মাধ্যমিক পাশ হতে হবে।

আবার যে কোনও বিষয়ে স্নাতক পাশ হলেই স্নাতকোত্তরে যোগ নিয়ে পড়াশোনা করা যায়। তবে এ ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন দর্শনের পড়ুয়ারা।

বন্ধ করুন