বাড়ি > কর্মখালি > অতিমারীর মাঝেই দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির ক্লাস চালু করতে চায় স্কুল, বলছে CBSE সমীক্ষা
স্কুলের অধ্যক্ষরা কোভিড পরিস্থিতিতেই দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য ক্লাসরুম পুনরায় চালু করার পক্ষে রয়েছেন।
স্কুলের অধ্যক্ষরা কোভিড পরিস্থিতিতেই দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য ক্লাসরুম পুনরায় চালু করার পক্ষে রয়েছেন।

অতিমারীর মাঝেই দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির ক্লাস চালু করতে চায় স্কুল, বলছে CBSE সমীক্ষা

  • কোভিড -১৯ পরিস্থিতিতেই দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য ক্লাসরুম পুনরায় চালু করার পক্ষে রয়েছেন।

সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশনের (CBSE) সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, স্কুলের অধ্যক্ষরা কোভিড -১৯ পরিস্থিতিতেই দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য ক্লাসরুম পুনরায় চালু করার পক্ষে রয়েছেন।

তবে কিছু অধ্যক্ষ কোনও ‘তাড়াহুড়ো’ করার বিরুদ্ধে সতর্ক করে বলেছেন, অভিভাবকরা স্বাস্থ্যের সুরক্ষার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী না হলে সন্তানদের স্কুলে পাঠাবেন না।

গত সপ্তাহে প্রায় ২৪,০০০ অনুমোদিত স্কুলগুলির অধ্যক্ষদের ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে স্কুলগুলি আবার চালু করার বিষয়ে, তাদের কী কী ব্যবস্থা নেওয়া উচিত এবং অনলাইনে ক্লাসগুলি কেমন দক্ষতার সঙ্গে চালু করা হবে, সে বিষয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষকে মতামত পাঠাতে বলেছিল CBSE।

‘আমরা একটি মিশ্র প্রতিক্রিয়া পেয়েছি। তবে অধ্যক্ষরা মূলত বিদ্যালয়গুলি আবারও চালু করতে চান, বিশেষত দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য (যারা পরের বছর বোর্ডের পরীক্ষার দেবে),’ বোর্ডের এক কর্মকর্তা বলেন।

CBSE-এর এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বোর্ড শিক্ষা মন্ত্রকের সঙ্গে এই সিদ্ধান্তগুলি ভাগ করে নেওয়ার পরে, রাজ্যগুলির সঙ্গে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত নেবে কেন্দ্র।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের গাইডলাইন অনুসারে, স্কুল, কলেজ এবং কোচিং সেন্টারগুলি ৩১ অগস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

দিল্লির আবাসিক স্কুল ‘দ্য মান স্কুলের’ অধ্যক্ষ শ্রীনিবাসন শ্রীরাম জানিয়েছেন,'আমি মনে করি যে, যে স্থানগুলি কন্টেনমেন্ট জোন নয়, সেখানে সেপ্টেম্বর মাস থেকে স্কুলগুলি সিনিয়র শিক্ষার্থীদের জন্য খোলা যেতে পারে। যেখানে পরিস্থিতি অনুকূল নয়, সেখানে স্কুল খোলার বিষয়টি পিছিয়ে দেওয়া যেতে পারে।'

 

বন্ধ করুন