বাংলা নিউজ > কর্মখালি > Durga Puja 2022 UNESCO Rally: UNESCO-র স্বীকৃতিতে দুর্গাপুজোর মিছিল, বৃহস্পতিবার কি স্কুল আগেই ছুটি হয়ে যাবে?
দুর্গাপুজোর ‘ধন্যবাদ’ মিছিলের জেরে কি স্কুল বন্ধ থাকবে? তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা কাটল না। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে সমীর জানা/হিন্দুস্তান টাইমস)

Durga Puja 2022 UNESCO Rally: UNESCO-র স্বীকৃতিতে দুর্গাপুজোর মিছিল, বৃহস্পতিবার কি স্কুল আগেই ছুটি হয়ে যাবে?

  • Durga Puja 2022 UNESCO Rally: নেতাজি ইন্ডোরে দুর্গাপুজো কমিটির প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, বেলা ১২ টার পর যেন স্কুলগুলিতে ছুটি দেওয়া হয়। তবে পুরো বিষয়টি নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

দুর্গাপুজোর ‘ধন্যবাদ’ মিছিলের জেরে কি স্কুল বন্ধ থাকবে? তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা কাটল না। বিশেষ সরকারি স্কুলের ক্ষেত্রে সেই ধোঁয়াশা রয়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যে কয়েকটি বেসরকারি স্কুলে অনলাইনে ক্লাস হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আগামিকাল (বৃহস্পতিবার) দুপুর দুটোয় উত্তর কলকাতার জোড়াসাঁকো থেকে দুর্গাপুজো নিয়ে ‘ধন্যবাদ’ মিছিল শুরু হবে। কলকাতার দুর্গাপুজো ইউনেস্কোর হেরিটেজ তকমা পাওয়ায় রাজ্য সরকারের তরফে সেই মিছিলের আয়োজন করা হয়েছে। সপ্তাহখানেক আগে নেতাজি ইন্ডোরে দুর্গাপুজো কমিটির প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, বেলা ১২ টার পর যেন স্কুলগুলিতে ছুটি দেওয়া হয়। 

আরও পড়ুন: Exclusive: সেপ্টেম্বরে ৩টে নিম্নচাপ, পুজোর মুখে ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাবনা, ভাসতে পারে শারদোৎসবও

যদিও তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে কোনও বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়নি। শিক্ষা দফতরের তরফে কোনও বিজ্ঞপ্তি জারি না করা হওয়ায় মধ্যশিক্ষা পর্ষদ বা উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে তাড়াতাড়ি স্কুল ছুটি নিয়ে জারি করা হয়নি কোনও নির্দেশিকা। সেই পরিস্থিতিতে আদৌও বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টার পর স্কুলের ছুটি হয়ে যাবে কিনা, তা নিয়ে ধন্দ তৈরি হয়েছে। যদিও ইতিমধ্যে অনলাইনে ক্লাসের ঘোষণা করেছে সাউথ পয়েন্ট স্কুল।

আরও পড়ুন: Durga Puja 2022: 'দিদির থেকে নয়া স্বীকৃতি চাই না', তপতীর একার কৃতিত্বে UNESCO হেরিটেজ দুর্গাপুজো?

দুর্গাপুজো নিয়ে মমতার বিভিন্ন ঘোষণা

  • এবার ৪৩,০০০ পুজো কমিটিকে ৬০,০০০ টাকা অনুদান দেওয়া হবে। রাজ্যের ‘ভাঁড়ার শূন্য’ হওয়া সত্ত্বেও ১০,০০০ টাকা বেশি দেওয়া হচ্ছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আশা, মা দুর্গার হাত ধরে রাজ্যের আর্থিক সংকট কেটে যাবে। আসবে সাফল্যের জোয়ার। 
  • বিদ্যুতের বিলের ক্ষেত্রে পুজো কমিটিগুলিকে ৬০ শতাংশ ছাড়ের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। যা আগে ছিল ৫০ শতাংশ। নেতাজি ইন্ডোরের মঞ্চ থেকে সেই নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। সেইসঙ্গে তিনি জানান, দমকলের ছাড়পত্রের জন্যও কোনও টাকা লাগে না।
  • কবে বিসর্জন হবে? মমতা বলেন, ‘২৫ সেপ্টেম্বর হচ্ছে মহালয়া। ২৯ সেপ্টেম্বর হচ্ছে মহাচতুর্থী। ৩০ সেপ্টেম্বর হচ্ছে মহাপঞ্চমী। ১ অক্টোবর হচ্ছে মহাষষ্ঠী। ২ অক্টোবর হচ্ছে মহাসপ্তমী। ৩ অক্টোবর হচ্ছে মহাষ্টমী। ৪ অক্টোবর হচ্ছে মহানবমী। ৫ অক্টোবর হচ্ছে বিজয়া দশমী। বিসর্জনের দিন ঠিক করা হয়েছে ৫ অক্টোবর, ৬ অক্টোবর, ৭ এবং ৮ অক্টোবর। ৯ অক্টোবর লক্ষ্মীপুজো এবং ফাতেহা দোয়াজ দাহাম আছে।’
  • দুর্গাপুজো ইউনেস্কোর হেরিটেজ স্বীকৃতি পাওয়ায় এবার বৃহদাকারে কার্নিভাল করতে চলেছে রাজ্য সরকার। কলকাতা-সহ রাজ্যের সব জেলায় ১ সেপ্টেম্বর মিছিল হবে। কার্নিভালও হবে রাজ্যের সব জেলায়। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ৮ অক্টোবর কলকাতায় কার্নিভাল হবে। একদিন আগেই জেলাগুলিতে কার্নিভাল আয়োজনের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বন্ধ করুন