বাড়ি > কর্মখালি > অসমে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে নিখরচায় ভরতির ঘোষণা সরকারের
করোনা সংক্রমণের জেরে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলিকে স্বস্তি দিতে এই প্রয়াস, দাবি অসমের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব সরমার।
করোনা সংক্রমণের জেরে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলিকে স্বস্তি দিতে এই প্রয়াস, দাবি অসমের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব সরমার।

অসমে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে নিখরচায় ভরতির ঘোষণা সরকারের

  • অসমের কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত শিক্ষার্থীকে নিখরচায় ভরতির কথা ঘোষণা করল রাজ্য সরকার।

করোনা সংক্রমণের জেরে যখন দেশের বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ফি বাড়াচ্ছে, তখনই ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ করল অসম সরকার। অভিভাবকদের স্বস্তি দিয়ে অসমের কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত শিক্ষার্থীকে নিখরচায় ভরতির কথা ঘোষণা করল রাজ্য সরকার।

কভিড -১৯ অতিমারি ও তার জেরে বহু পরিবার এখন আর্থিক সংকটের সম্মুখীন। পরিবারগুলিকে স্বস্তি দিতে মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিং, কৃষি, পশুচিকিত্সা কলেজ-সহ রাজ্যের সরকারি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে বিনামূল্যে সকল শিক্ষার্থীকে ভর্তি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অসম সরকার।

এর আগে, শুধুমাত্র পারিবারিক বার্ষিক ২ লক্ষ টাকার কম আয়ের উপার্জনশীল পরিবারের শিক্ষার্থীরা এই সুবিধা পেতে।

শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব সরমা বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের জেরে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলিকে স্বস্তি দিতে আমাদের এই প্রয়াস। পরিবারের উপার্জন নির্বিশেষে আমরা উচ্চ মাধ্যমিক থেকে স্নাতকোত্তর পর্যায় পর্যন্ত সব স্তরে এ বছর ছাত্র ভরতির সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কলেজগুলি প্রস্পেক্টাস, ভ্রমণ ইত্যাদি খাতে কোনও ফি নিতে পারবে না।’

সরকারি কলেজের ছাত্রাবাসে থাকা শিক্ষার্থীদের মেসের পাওনা হিসাবে সরকার প্রতি মাসে ১০০০ টাকা ফেরত দেওয়ার (reimburse) সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ ছাড়া স্নাতক স্তরে পাঠরত শিক্ষার্থীদের পাঠ্য বইয়ের জন্য ১০০০ টাকা করে দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী। 

বন্ধ করুন