বাংলা নিউজ > কর্মখালি > জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপে মাসিক ভাতা বাড়িয়ে ৫০,০০০ টাকা হোক, সুপারিশ কেন্দ্রকে
জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপে মাসিক ভাতা বাড়িয়ে ৫০,০০০ টাকা হোক, সুপারিশ কেন্দ্রকে। (ছবিটি প্রতীকী, রবীন্দ্র জোশী/হিন্দুস্তান টাইমস)
জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপে মাসিক ভাতা বাড়িয়ে ৫০,০০০ টাকা হোক, সুপারিশ কেন্দ্রকে। (ছবিটি প্রতীকী, রবীন্দ্র জোশী/হিন্দুস্তান টাইমস)

জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপে মাসিক ভাতা বাড়িয়ে ৫০,০০০ টাকা হোক, সুপারিশ কেন্দ্রকে

  • বি.এসসি এবং বি.কমে দুটি সেমেস্টারে ইন্টার্নশিপ চালু করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বাড়ানো হোক জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপদের মাসিক ভাতা (স্টাইপেন্ড)। ‘হিন্দুস্তান টাইমস’-এর হিন্দি প্রকাশনা ‘লাইভ হিন্দুস্তান’-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, এমনই সুপারিশ করেছে শিক্ষা সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি। যে কমিটির রিপোর্ট মঙ্গলবার সংসদে পেশ করা হয়েছে। রিপোর্টে জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপদের মাসিক ভাতা বাড়িয়ে ৫০,০০০ টাকা করার সুপারিশ করা হয়েছে। 

২০১৯ সালে জুনে বর্ধিত ভাতা অনুযায়ী, মাসে ৩১,০০০ টাকা ভাতা পান জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপরা। সিনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপরা মাসিক ভাতা পান ৩৫,০০০ টাকা। কিন্তু সেই ভাতা পর্যাপ্ত নয় বলে দীর্ঘদিন ধরেই দাবি জানিয়ে আসছেন গবেষকরা। একাংশের দাবি, আপাতত যে ভাতা দেওয়া হয়, তা প্রয়োজনের তুলনায় ঢের কম। সমুদ্রের এক ফোঁটা জল ছাড়া কিছু নয়।

তারইমধ্যে বিজেপি সাংসদ বিনয় পি সহস্রবুদ্ধের নেতৃত্বাধীন কমিটির রিপোর্টে গবেষকদের ভাতা বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে। ‘লাইভ হিন্দুস্তান’-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, শুধু গবেষকদের জন্য নয়, উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে আরও অর্থ বরাদ্দের প্রস্তাব দিয়েছে কমিটি। একইসঙ্গে রাষ্ট্রীয় অনুসন্ধান ফাউন্ডেশনে দেশের ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন বিষয় নিয়েও ফেলোশিপ চালু করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে রিপোর্টে। সেই সঙ্গে উচ্চশিক্ষার সময় অর্থ উপার্জনের সুযোগ প্রদান এবং অভিজ্ঞতা বাড়ানোর জন্য বি.এসসি এবং বি.কমে দুটি সেমেস্টারে ইন্টার্নশিপ চালু করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কৃষি, স্বাস্থ্য এবং শিক্ষায় বেশি জোর দেওয়ার জন্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই), ন্যানো টেকনোলজি, কমিটিতে বিনিয়োগের জন্য রিপোর্টে পরামর্শ দিয়েছে কমিটি।

বন্ধ করুন