বাংলা নিউজ > কর্মখালি > NEET 2020 Results: ৭২০-তে ৭২০! NEET-এর ইতিহাসে প্রথমবার ‘পারফেক্ট’ নম্বর শোয়েব-আকাঙ্ক্ষার
ওড়িশার শোয়েব আফতাব এবং দিল্লি আকাঙ্ক্ষা সিং (ছবি সৌজন্য টুইটার)
ওড়িশার শোয়েব আফতাব এবং দিল্লি আকাঙ্ক্ষা সিং (ছবি সৌজন্য টুইটার)

NEET 2020 Results: ৭২০-তে ৭২০! NEET-এর ইতিহাসে প্রথমবার ‘পারফেক্ট’ নম্বর শোয়েব-আকাঙ্ক্ষার

  • এই প্রথম নিটে ‘পারফেক্ট’ ৭২০ পেলেন কোনও প্রার্থী।

৭২০-তে ৭২০! মেডিক্যালের সর্বভারতীয় অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষায় (নিট) নয়া ইতিহাস তৈরি করলেন ওড়িশার শোয়েব আফতাব এবং দিল্লির আকাঙ্ক্ষা সিং। এই প্রথম নিটে ‘পারফেক্ট’ ৭২০ পেলেন কোনও প্রার্থী। তবে বয়সের ভিত্তিতে প্রথম হয়েছেন আফতাব এবং দ্বিতীয় হয়েছেন আকাঙ্ক্ষা।

এবার মেডিক্যাল কলেজে প্রবেশিকা পরীক্ষার জন্য ১৫.৯ লাখ প্রার্থী নথিভুক্ত হয়েছিলেন। পরীক্ষায় বসেছিলেন ১৩.৬ লাখ প্রার্থী। তাঁদের মধ্যে ৮.৮ লাখ প্রার্থী ছিলেন মহিলা। আয়োজক সংস্থা ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সির তরফে জানানো হয়েছে, পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন ৭৭১,৫০০ জন। 

ফল প্রকাশের পর আফতাব (১৮) জানান, পরীক্ষায় সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিলেন। প্রথম একশোর মধ্যে থাকবেন বলে আশাও ছিল। তবে তিনিই যে প্রথম হবেন, তা ভাবতেও পারেননি। তিনি বলেন, 'যখন অ্যানসার কি'র সঙ্গে আমার স্কোর দেখলাম এবং যখন দেখি পুরো নম্বর পেয়েছি, তখন থেকেই সারা ভারতে প্রথম হওয়ার বিষয়ে ভাবতে থাকি।'

চিকিৎসক হওয়ার লক্ষ্যে দীর্ঘদিন ধরেই প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এতটাই সেই লক্ষ্যে অবিচল ছিলেন যে কোটা থেকে আড়াই বছর ওড়িশার বাড়িতে ফেরেননি। আফতাব বলেন, ‘আমার বাবা বাড়িতে আসার জন্য একাধিকবার বলেছিলেন। দীপাবলি ও ইদের সময় ছুটি পেয়েছিলেন। কিন্তু কোটায় থেকে গিয়েছিলাম, যাতে আমার পড়াশোনায় কোনও ব্যাঘাত না ঘটে। করোনা (করোনাভাইরাস) লকডাউনের সময়ও আমি এখানে ছিলাম। আমার সঙ্গে মা থাকতেন। তাই খাবারের কোনও অসুবিধা হয়নি। বোর্ড পরীক্ষার পর নিটের পুরো পাঠ্যক্রম আবারও শেষ করার বেশি সময় থাকে না। তাই আমি লকডাউনের পাঁচ মাস ভালোভাবে ব্যবহার করেছি। আমি একাধিকবার বিভিন্ন বিষয়গুলি পড়েছি, যাতে কোনও কিছু বাদ পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা না থাকে।’ 

শোয়েব জানান, এইমস থেকে এমবিবিএস পড়ে হৃদরোগের বিশেষজ্ঞ হতে চান তিনি। বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত যে রোগের কোনও চিকিৎসার প্রক্রিয়া উদ্ভাবন হয়নি, সেই ক্ষেত্রে আমি গবেষণা করতে চাই।’

বন্ধ করুন