বাংলা নিউজ > কর্মখালি > NEET 2020: বিলে অনুমোদন, তামিলনাড়ু মেডিক্যালে ভরতির ক্ষেত্রে সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের ৭.৫% সংরক্ষণ
মেডিক্যালে ভরতির ক্ষেত্রে এবার সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের জন্য ৭.৫ শতাংশ আসন সংরক্ষিত থাকবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
মেডিক্যালে ভরতির ক্ষেত্রে এবার সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের জন্য ৭.৫ শতাংশ আসন সংরক্ষিত থাকবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

NEET 2020: বিলে অনুমোদন, তামিলনাড়ু মেডিক্যালে ভরতির ক্ষেত্রে সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের ৭.৫% সংরক্ষণ

  • রাজ্যপালের সঙ্গে সরকার সংঘাত চরমে উঠেছিল।

মেডিক্যালে ভরতির ক্ষেত্রে এবার সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের জন্য ৭.৫ শতাংশ আসন সংরক্ষিত থাকবে। অর্থাৎ সর্বভারতীয় অভিন্ন মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষায় (নিট) উত্তীর্ণ হলে ভরতির ক্ষেত্রে সেই সংরক্ষণের সুবিধা পাবেন সরকারি স্কুলের পড়ুয়ারা। যাঁরা ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত সরকারি স্কুলে পড়েছেন। আজ (শুক্রবার) সেই কোটা বিলে অনুমোদন দিয়েছেন তামিলনাড়ুর রাজ্যপাল বনওয়ারিলাল পুরোহিত। তার ফলে সেই বিল আইনে পরিণত হয়েছে।

আরও পড়ুন : NEET counselling 2020: শুরু রেজিস্ট্রেশন, কীভাবে করবেন, দেখে নিন

গতকাল (বৃহ্স্পতিবার) কার্যনির্বাহী ক্ষমতার ব্যবহার করে এবার মেডিক্যালে ভরতির ক্ষেত্রে কোটা নিয়ম চালু করে তামিলনাড়ু সরকার। সেজন্য একটি সরকারি নির্দেশিকাও জারি করা হয়। স্পষ্টতই সেই কোটা বিল রাজ্যপালের সঙ্গে সংঘাতের পথে হাঁটে সরকার। যে বিলে অনুমোদনের আগে পর্যালোচনার জন্য সময় চেয়েছিলেন রাজ্যপাল। তা নিয়ে ডিএমকে-সহ বিরোধী দলগুলিও রাজ্যপালের বিরুদ্ধে বিলে অনুমোদন দেওয়ার ক্ষেত্রে টালবাহানার অভিযোগ তুলেছিল।

আরও পড়ুন : NEET 2020 Results: দু'জনেরই প্রাপ্ত নম্বর ৭২০, তাও NEET-এ প্রথম শোয়েব, দ্বিতীয় আকাঙ্ক্ষা কেন?

অবশেষে শুক্রবার রাজভবনের তরফে জানানো হয়েছে, কোটা বিলে সায় দিয়েছেন রাজ্যপাল। গত সেপ্টেম্বরে বিল পাশ হওয়ার পর সেই মাসের শেষের দিকে সলিসিটর জেনারেলের থেকে আইনি পরামর্শ চেয়েছিলেন তিনি। গত ২৯ অক্টোবর সেই মতামত মিলেছে। সরকারের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতের পথে না হেঁটে রাজভবনের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মতামত পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মাননীয় রাজ্যপাল বিলে সায় দিয়েছেন।’

আরও পড়ুন : NEET 2020: 'ফেল' থেকে ST ক্যাটেগরিতে 'প্রথম'-এর দাবিতে টুইস্ট, ভুয়ো জানাল NTA

রাজনৈতিক মহলের মতে, আগামী বছর বিধানসভা ভোটের আগে সেই কোটা নিয়ম কার্যকর হওয়ায় অত্যন্ত স্বস্তিতে থাকব শাসক দল এআইএডিএমকে। এমনিতেই নিট নিয়ে তামিলনাড়ুর রাজনীতি যথেষ্ট উত্তপ্ত হয়েছে। তাই ভোটের আগে সেই নিয়ম কার্যকরে মরিয়া হয়ে উঠেছিল শাসক দল।

বন্ধ করুন