বাড়ি > কর্মখালি > CBSE দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির কম্পার্টমেন্টাল পরীক্ষা বাতিল মামলার শুনানি শনিবার
বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, সমস্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনেই পরীক্ষা নেওয়া হবে।
বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, সমস্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনেই পরীক্ষা নেওয়া হবে।

CBSE দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির কম্পার্টমেন্টাল পরীক্ষা বাতিল মামলার শুনানি শনিবার

  • CBSE-কে ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পরীক্ষা সংক্রান্ত এফিডেভিট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

CBSE দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির কম্পার্টমেন্টাল পরীক্ষার বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টে শুক্রবারে করা আবেদনের শুনানি হবে আগামিকাল।

বিচাপতি এ এম খান্বিলকর, দীনেশ মাহেশ্বরী এবং সঞ্জীব খান্নার বেঞ্চ CBSE-কে ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পরীক্ষা সংক্রান্ত এফিডেভিট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে স্পষ্ট করে জানাতে বলেছে ১০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে।

বাদী পক্ষের আইনজীবী জানিয়েছেন, যে সব পড়ুয়া মূল পরীক্ষা দেয়নি তাদের পরবর্তী ক্লাসে তুলে দেওয়া হয়েছে। অথচ আগেই জানানো হয়েছে, করোনা পরিস্থিতির মাঝেই কম্পার্টমেন্ট পড়ুয়াদের পরীক্ষা নেবে বোর্ড। সেপ্টেম্বরের শেষে পরীক্ষা হলে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে তারা অসুবিধায় পড়বে, কারণ তত দিনে ভরতি প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যাবে।

বোর্ডের তরফের আইনজীবী জানিয়েছেন, সমস্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনেই পরীক্ষা নেওয়া হবে। ১,২০০ কেন্দ্রে পরীক্ষার বন্দোবস্ত করা হচ্ছে। প্রতিটি শ্রেণিকক্ষে ৪০ জনের পরিবর্তে মাত্র ১২ জন পড়ুয়া থাকবে। পরীক্ষা সম্পর্কে আদালতকে খুব তাড়াতাড়ি তাদের অবস্থান জানাবে CBSE।

এই পরিপ্রক্ষিতেই আদালত CBSE-কে ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সমগ্র পরীক্ষা পরিকল্পনা জানিয়ে এফিডেভিট পেশ করার নির্দেশ দিয়েছে।

এর আগে মোট ২,১০,০০০ জন কম্পার্টমেন্ট পাওয়া পড়ুয়ার তরফে আবেদন জানানো হয় সুপ্রিম কোর্টে। তাদের মূল বক্তব্য, করোনা সংক্রমণ যে ভাবে বাড়ছে তাতে এই অবস্থায় পরীক্ষা দেওয়া সম্ভব নয়। আবার, জুলাই মাসে পরীক্ষার বন্দোবস্ত না-করায় তারা কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভরতি হতে পারবে না। তাই কম্পার্টমন্ট পরীক্ষা বাতিলের আবেদন জানায় পড়ুয়ারা।

 

বন্ধ করুন