বাড়ি > কর্মখালি > বাতিল হচ্ছে না NEET 2020 ও JEE 2020, সুপ্রিম দ্বারে খারিজ পড়ুয়াদের আর্জি
কোভিড আরও একবছর ধরে চলতে পারে। আপনারা কি ততদিন অপেক্ষা করবেন? পড়ুয়াদের কৌঁসুলিকে প্রশ্ন করল সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ।
কোভিড আরও একবছর ধরে চলতে পারে। আপনারা কি ততদিন অপেক্ষা করবেন? পড়ুয়াদের কৌঁসুলিকে প্রশ্ন করল সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ।

বাতিল হচ্ছে না NEET 2020 ও JEE 2020, সুপ্রিম দ্বারে খারিজ পড়ুয়াদের আর্জি

  • পরীক্ষা আয়োজক সংস্থার তরফে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সুরক্ষার আশ্বাসের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে শীর্ষ আদালত।

Covid-19 পরিস্থিতির কারণে NEET 2020 এবং JEE 2020 বাতিল করার জন্য পরীক্ষার্থীদের আবেদন সোমবার খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট। পরীক্ষা আয়োজক সংস্থার তরফে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সুরক্ষার আশ্বাসের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেয় শীর্ষ আদালত।

এ দিন সুপ্রিম কোর্টের তিন সদস্যের বেঞ্চ-এর নেতৃত্বে থাকা বিচারপতি অরুণ মিশ্র বলেন, ‘শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা দরকার। কোভিড আরও একবছর ধরেও চলতে পারে। আপনারা কি এক বছর ধরে অপেক্ষা করবেন? আপনারা কি জানেন দেশের এবং পড়ুয়াদের কেরিয়ারের এর ফলে কত বড় ক্ষতি হবে?’

এর পর আদালত আবেদনকারীদের পিটিশন তুলে নেওয়ার আর্জিও বাতিল করে দেয়।

আইনজীবী অলখ অলোক শ্রীবাস্তব এই সময় বলে ওঠেন, ‘মহামান্য প্রধানমন্ত্রী বলেছেন শিগগিরই ভ্যাক্সিন তৈরি হবে। আমরা ততদিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারি...’

তাঁকে বিচারপতি বি আর গাভাই বলেন, ‘আপনারাই না বলছেন, কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে আদালত খোলা রাখতে? আপনি কি এই কাচের পার্টিশান দেখতে পাচ্ছেন? (কোভিড পরিস্থিতিতে এজলাসে উপস্থিত বিচারপতিরা কাচের পার্টিশানের আড়ালে বসছেন) যখন আমরা সবকিছু চালু করার ব্যবস্থা করছি, তখন আপনারা বলছেন পরীক্ষার আয়োজন করা উচিত নয়।’ 

ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি-র (NTA) তরফে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেন, পরীক্ষার আয়োজন করার জন্য তাঁর মক্কেল প্রস্তুত। 

আগামী সেপ্টেম্বর মাসে নির্দিষ্ট NEET ও JEE পরীক্ষা বাতিল করার জন্য আদালতে আবেজানিয়েছিলেন ১১টি রাজ্যের ১১ জন পরীক্ষার্থী। তাঁদের যুক্তি ছিল, অতিমারীর মাঝে পরীক্ষাকেন্দ্রে হাজিরা দিতে গিয়ে পয়েক লাখ পড়ুয়া বড় ঝুঁকির মুখে পড়বেন। এই কারণে NTA-এর সিদ্ধান্ত ‘চূড়ান্ত হঠকারী, স্বেচ্ছাচারী ও পড়ুয়াদের মৌলিক অধিকার খর্ব করা হয়েছে’ বলে অভিযোগ জানান পরীক্ষার্থীরা। 

বন্ধ করুন