বাংলা নিউজ > কর্মখালি > বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভরতিতে NRI সংরক্ষণ নিয়ে রায় সুপ্রিম কোর্টের
বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে অনাবাসী ভারতীয় পড়ুয়াদের ভরতি সংক্রান্ত সংরক্ষণে কোনও বাধ্যবাধকতা নেই, রায় সুপ্রিম কোর্টের।
বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে অনাবাসী ভারতীয় পড়ুয়াদের ভরতি সংক্রান্ত সংরক্ষণে কোনও বাধ্যবাধকতা নেই, রায় সুপ্রিম কোর্টের।

বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভরতিতে NRI সংরক্ষণ নিয়ে রায় সুপ্রিম কোর্টের

  • শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, ভরতি নিয়ে সংরক্ষণ ব্যবস্থা মানা বা না-মানা পুরোটাই নির্ভর করবে কলেজ কর্তৃপক্ষের মর্জির ওপর।

বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে অনাবাসী ভারতীয় পড়ুয়াদের ভরতি সংক্রান্ত সংরক্ষণে কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। শুক্রবার এই রায় ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট।

শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, ভরতি নিয়ে সংরক্ষণ ব্যবস্থা মানা বা না-মানা পুরোটাই নির্ভর করবে কলেজ কর্তৃপক্ষের মর্জির ওপর। যদি কোনও মেডিকেল কলেজ বা প্রতিষ্ঠান এই জাতীয় সংরক্ষণ তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, তবে এ ব্যাপারে যথাযথ নোটিশ দিতে হবে যাতে সেই সব আসনে আগ্রহীরা ভরতি হওয়ার সুযোগ পান। বিচারপতি এল নাগেস্বর রাওয়ের নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ এই রায় দেয়। 

বিচারপতি এস রবীন্দ্র ভাটের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ বলে, ‘বেসরকারি কলেজ এবং প্রতিষ্ঠানগুলি এনআরআই কোটা দেওয়ার বিষয়ে এবং কতটা পরিমাণে তা দেবে সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারে।যদি এই ধরনের সংরক্ষণ রাখতে হয়, তবে তা যথা সময়ে যুক্তিসঙ্গত ভাবে সংশোধন ও পরিমার্জন করতে হবে।’ 

২০২০-২১ শিক্ষা বর্ষে NRI কোটা বাদ দিয়ে রাজস্থানের কলেজগুলিতে স্নাতকোত্তর (পিজি) মেডিক্যাল ও ডেন্টাল আসনে ভর্তির ক্ষেত্রে আসন সংখ্যা পরিবর্তনের পক্ষে রাজস্থান উচ্চ আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কিছু মেডিক্যাল প্রার্থী সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন। ২০২০ সালের গোড়াতে ২০২০-২১ শিক্ষা বর্ষের জন্য PG মেডিকেল ও ডেন্টাল কোর্সে ভর্তি শুরু হয়।  

২০২০ সালের জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত  ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এন্ট্রান্স টেস্ট (NEET) প্রার্থীদের বাছাই করা হয়। ১৭ মার্চ বন্টন করা আসনের তালিকা প্রকাশ করা হলে দেখা যায় সেখানে ১৫% আসন NRI কোটার প্রার্থীদের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে। কিন্তু করোনা ও লকডাউনের জেরে বেসরকারি কলেজগুলি NRI সংরক্ষণ ব্যবস্থা থেকে দূরে সরে আসে। 

এর আগে NRI প্রার্থীদের ম্যানেজমেন্ট কোটার প্রার্থী হিসেবে গণ্য করা হত। এবং তাঁদের আবেদন সার্বিক মেধার ভিত্তিতে বিবেচনা করা হত। এই  নিয়ে রাজস্থান হাই কোর্টে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়। একক বিচারপতির বিবেচনাধীন মামলায় রায় দেওয়া হয়, NRI কোটায় সংরক্ষণের পরে বাকি আসনের ১৫% ম্যানেজমেন্ট কোটার আসন হিসেবে বিবেচনা করা যেতে পারে। 

২৫ অগস্ট একক বিচারকের এই সিদ্ধান্তকে খারিজ করে রাজস্থান হাইকোর্টের এক ডিভিশন বেঞ্চ বেসরকারি কলেজগুলির সিদ্ধান্তকে অনুমোদন দেয়। কিন্তু তার আগেই আদালতের আদেশের ভিত্তিতে কলেজগুলি ভরতি নেওয়া শুরু করে । ডিভিশন বেঞ্চের রায় মেনে নেওয়ার অর্থ ওই আসনগুলিতে আরও এক দফা ভর্তি নেওয়া হবে। 

শীর্ষ আদালত উল্লেখ করে, NRI কোটা বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলির বিবেচনাধীনএবং এর আগে TMA Pai ফাউন্ডেশন বনাম কর্নাটক রাজ্য এবং পিএ ইনামদার বনাম মহারাষ্ট্র রাজ্য সরকারের মামলায় শীর্ষ আদালত রায় দিয়ে বিষয়টির নিষ্পত্তি করেছে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে আদালত জানিয়েছে একক বিচারপতির রায়ের ভিত্তিতে ভর্তি নেওয়া আসনগুলিতে বিশেষ কাউন্সেলিং করা হোক। 

বন্ধ করুন