বাংলা নিউজ > কর্মখালি > Swiggy Moonlighting policy: এবার থেকে আরও একটি চাকরি করতে পারবেন সুইগি কর্মীরা
 ফাইল ছবি: মিন্ট (MINT_PRINT)

Swiggy Moonlighting policy: এবার থেকে আরও একটি চাকরি করতে পারবেন সুইগি কর্মীরা

Swiggy Second Job : সুইগির ব্যাখা, সেটা কোনও এনজিও-তে স্বেচ্ছাসেবী থেকে শুরু করে নাচের প্রশিক্ষক হিসাবে কাজ করা হতে পারে। সোশ্যাল মিডিয়ার কনটেন্ট ক্রিয়েটরের মতো কাজও হতে পারে।

'মুনলাইটিং পলিসি' চালু করল সুইগি। এর অধীনে, কাজের সময়ের পরে অন্য কোনও পেশায় চাইলে নিযুক্ত হতে পারবেন সুইগি কর্মীরা। ফুড ডেলিভারি প্ল্যাটফর্মের দাবি, এই সেক্টরে তারাই প্রথম এমন কর্মী-বান্ধব নীতি আনল। নির্দিষ্ট কিছু শর্তে দ্বিতীয় কোনও চাকরির অনুমতি পাবেন কর্মীরা।

'অফিসের সময়ের বাইরে বা সাপ্তাহিক ছুটির দিনে তাঁরা অন্য কাজ করতে পারেন। এমন কাজ, যা তাঁদের ফুল-টাইম চাকরির কাজ প্রভাবিত করবে না। পাশাপাশি সেই কাজে সুইগির ব্যবসার সঙ্গেও কোনভাবেই স্বার্থের দ্বন্দ্ব থাকবে না,' জানিয়েছে সংস্থা।

Swiggy-র মতে, Covid-19-এর কারণে দেশব্যাপী লকডাউন চলাকালীন, বহু মানুষ কোনও নতুন আগ্রহ বা নিজেদের অন্য কোনও প্রতিভার খোঁজ পেয়েছেন। তাছাড়া অনেকে অন্য কোনও কাজের মাধ্যমে পরিবারের জন্য আয়ের একটি নতুন উৎস তৈরি করতে চান। সেই সুযোগ দিতেই তাঁদের এই নীতি।

কেমন কাজ?

সুইগির ব্যাখা, সেটা কোনও এনজিও-তে স্বেচ্ছাসেবী থেকে শুরু করে নাচের প্রশিক্ষক হিসাবে কাজ করা হতে পারে। সোশ্যাল মিডিয়ার কনটেন্ট ক্রিয়েটরের মতো কাজও হতে পারে। সুইগির বিশ্বাস, একজনের পূর্ণ-সময়ের কর্মসংস্থানের বাইরেও এই জাতীয় বিষয়ে কাজ তাঁর পেশাদার এবং ব্যক্তিগত, উভয় স্বত্বার বিকাশে উল্লেখযোগ্যভাবে অবদান রাখে।

গত সপ্তাহে, সুইগি তার বেশিরভাগ কর্মীর জন্য স্থায়ীভাবে ওয়ার্ক-ফ্রম-হোম চালু করার নীতির ঘোষণা করেছে। সংস্থার বেশ কয়েকজন ম্যানেজারের মতামতের পর এবং কর্মীদের চাহিদা অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত।

বন্ধ করুন