বাংলা নিউজ > কর্মখালি > করোনা বিধি মেনে ৪ জানুয়ারি থেকে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে ত্রিপুরায়
৪ জানুয়ারি ত্রিপুরায় সমস্ত স্কুল খোলার আগে স্যানিটাইজ করা হচ্ছে ক্লাসঘর। 
৪ জানুয়ারি ত্রিপুরায় সমস্ত স্কুল খোলার আগে স্যানিটাইজ করা হচ্ছে ক্লাসঘর। 

করোনা বিধি মেনে ৪ জানুয়ারি থেকে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে ত্রিপুরায়

  • ৪ জানুয়ারি থেকে সমস্ত স্কুল ও কলেজ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল ত্রিপুরা সরকার। সেই সঙ্গে হস্টেলগুলিও খুলে দেওয়া হবে।

বিগত ৩ সপ্তাহ ধরে করোনা সংক্রমণের হার কম। তাই ৪ জানুয়ারি থেকে সমস্ত স্কুল ও কলেজ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল ত্রিপুরা সরকার। এর পাশাপাশি হস্টেলগুলিও খুলে দেওয়া হবে।

গত ছয় মাসে রাজ্যে নথিভুক্ত করোনা কেসের সংখ্যা ৩৩,২৪৪। মৃতের সংখ্যা ৩৮২। শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ আজ বলেন, গতকাল শিক্ষা দফতরের হাই পাওয়ার কমিটি একটি বৈঠকে পঞ্চম শ্রেণি থেকে সব স্কুল, কলেজ এবং হোস্টেল খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের হাজিরা ১০০% থাকবে বলে জানানো হয়েছে। তবে পড়ুয়াদের উপস্থিতি অভিভাবকদের সম্মতির ওপর নির্ভর করছে।

তিনি বলেন, সমস্ত সরকারি, সরকারি অনুমোনপ্রাপ্ত ও প্রাইভেট স্কুলেই পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি এবং কলেজ, প্রফেশনাল ইনস্টিটিউশন ৪ জানুয়ারি থেকে খুলে যাচ্ছে। পরিষ্কার পরিচছন্নতা র সমস্ত নিয়ম বিধি মেনেই এগুলি খোলা হচ্ছে।

ডিসেম্বরের শুরুতেই নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য স্কুল গুলি খোলা হয়েছে। স্যানিটাইজেশন, জল, সাবান এ সবের পর্যাপ্ত যোগান যাতে স্কুল গুলিতে থাকে তার জন্য পৃথক ফান্ডের বন্দোবস্ত করেছে রাজ্য সরকার। ২ জানুয়ারির মধ্যে সমস্ত স্কুল, কলেজ, ইনস্টিটিউশন জীবানুমুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা দফতর।

তবে CBSE ও ICSE অনুমোদিত স্কুল গুলি চাইলে তাদের ক্যাম্পাস খুলে দিতে পারে অথবা অনলাইন ক্লাস চালু রাখতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

হোস্টেলের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা, রান্নাবান্না, খাবার দেখভালের জন্য শিক্ষা দফতরের তরফে আলাদা আলাদা কমিটি গঠন করেছে শিক্ষা দফতর। সেই সঙ্গে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে স্বাস্থ্য কর্মী রা নিয়মিত হোস্টেলে এসে দেখভাল করবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রী।

বন্ধ করুন