বাড়ি > কর্মখালি > জুনের শেষে খুলছে বিশ্বভারতী, পড়ুয়াদের ১ জুলাইয়ের মধ্যে প্রবেশের নির্দেশ
২৮ জুন থেকে ১ জুলাইয়ের মধ্যে পড়ুয়াদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে হবে।
২৮ জুন থেকে ১ জুলাইয়ের মধ্যে পড়ুয়াদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে হবে।

জুনের শেষে খুলছে বিশ্বভারতী, পড়ুয়াদের ১ জুলাইয়ের মধ্যে প্রবেশের নির্দেশ

  • আগামী ২৮ জুন থেকে ১ জুলাইয়ের মধ্যে পড়ুয়াদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে হবে।

জুনের শেষেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটক খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল বিশ্বভারতী। তবে করোনা সংক্রমণ রোধে সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

আবাসিক পড়ুয়াদের উদ্দেশে ই মেল বার্তায় জানানো হয়েছে, আগামী ২৮ জুন থেকে ১ জুলাইয়ের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে হবে। জানানো হয়েছে, সামাজিক দূরত্ব বিধি মানার পাশাপাশি সমস্ত পড়ুয়া, শিক্ষক ও কর্মীদের মাস্ক পরা আবশ্যিক করা হয়েছে। 

রাজ্যের এবং বাংলার বাইরে থাকা ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশে ই মেল মারফত কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে এবং হস্টেলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। জানানো হয়েছে, জীবাণুমুক্ত করা হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ক্লাসঘর, দফতর, গ্রন্থাগার-সহ গোটা ক্যাম্পাস। 

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণে জারি করা লকডাউন বিধি অনেকটাই শিথিল করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় সহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর আগে ৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ রাখা হবে বলে ঘোষণা করেছিল প্রশাসন। শুধু ২৯ জুন এবং ২ ও ৬ জুলাই উচ্চ মাধ্যমিিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। পরে সেই নির্দেশিকায় রদবদল ঘটিয়ে ২৯ জুন রাজ্যের সব পরীক্ষা বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। 

রাজ্য শিক্ষা দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, স্কুল খোলার পরে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা এবং যাতায়াতের সমস্যার কারণে পরীক্ষাকেন্দ্র বাড়ি কাছাকাছি নির্দিষ্ট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা দফতর। সেই সঙ্গে পরীক্ষাকেন্দ্রে সমস্ত রকমম স্বাস্থ্যবিধি পালন করা আবশ্যিক ঘোষমা করেছে সরকার। 

বন্ধ করুন