বাংলা নিউজ > কর্মখালি > WB Police jobs: 'হিজাব পরা ছবির জন্য প্রার্থীপদ বাতিল',রায়ের উপর নির্ভর করবে পুলিশে নিয়োগ: আদালত
আবেদনপত্রে হিজাব পরা ছবির জন্য 'বাতিল' হয়ে গিয়েছিল প্রার্থীপদ। তা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন কয়েকজন মুসলিম প্রার্থী। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
আবেদনপত্রে হিজাব পরা ছবির জন্য 'বাতিল' হয়ে গিয়েছিল প্রার্থীপদ। তা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন কয়েকজন মুসলিম প্রার্থী। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

WB Police jobs: 'হিজাব পরা ছবির জন্য প্রার্থীপদ বাতিল',রায়ের উপর নির্ভর করবে পুলিশে নিয়োগ: আদালত

  • আবেদনপত্রে হিজাব পরা ছবির জন্য 'বাতিল' হয়ে গিয়েছিল প্রার্থীপদ। এমনই দাবি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে।

আবেদনপত্রে হিজাব পরা ছবির জন্য 'বাতিল' হয়ে গিয়েছিল প্রার্থীপদ। তা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন কয়েকজন মুসলিম প্রার্থী। সেই মামলায় সোমবার হাইকোর্ট জানিয়ে দিল, যে মামলা দায়ের হয়েছে, তার ভিত্তিতে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগ হবে। অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের নিয়োগ প্রক্রিয়ার যে ফলাফল হবে, তা সংশ্লিষ্ট রিট পিটিশনের নির্দেশ মেনে করতে হবে।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয়। সেজন্য সেপ্টেম্বরের গোড়ার দিকে অ্যাডমিট কার্ড প্রকাশ করা হয়েছিল। অভিযোগ উঠেছিল, হিজাব পরে ছবি দেওয়ায় প্রায় ১,০০০ জন মুসলিম মহিলার প্রার্থীপদ বাতিল করে দেওয়া হয়েছিল। তা নিয়ে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন কয়েকজন প্রার্থী।

পশ্চিমবঙ্গ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের (২০২০) নিয়ম অনুযায়ী, ছবিতে প্রার্থীর মুখে কোনওভাবে ঢাকা রাখা যাবে না। মুখ বা মাথা ঢাকা দিয়ে, চোখ ঢেকে থাকা সানগ্লাস পরে ছবি তোলার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা আছে। যদিও মামলাকারীদের দাবি, পশ্চিমবঙ্গ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের (২০১৯) নির্দেশিকায় এরকম কোনও নিয়ম ছিল না। নয়া নির্দেশিকায় যে নিয়ম আছে, তা আদতে সংবিধানের ২৫ ধারায় প্রদত্ত মৌলিক অধিকার লঙ্ঘন করছে। 

সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি অরিন্দম মুখোপাধ্যায় বলেন, 'প্রাথমিক শুনানিতে আমার মনে হচ্ছে যে কোনও বিতর্কিত বিষয় জড়িত না থাকায় কোনও হলফনামায় ছাড়াই বিষয়টির নিষ্পত্তি হতে পারে।' সেইসঙ্গে তিনি জানান, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের নিয়োগ প্রক্রিয়ার যে ফলাফল হবে, তা সংশ্লিষ্ট রিট পিটিশনের নির্দেশ মেনে করতে হবে। যে মামলার শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য হয়েছে আগামী বছরের ৬ জানুয়ারি।

বন্ধ করুন